বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিজেপি রাজ্যে জরুরি অবস্থা জারির চেষ্টা চালাচ্ছে, বাবুলের প্রচারে দাবি অভিষেকের
বাবুল সুপ্রিয়র হয়ে প্রচারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

বিজেপি রাজ্যে জরুরি অবস্থা জারির চেষ্টা চালাচ্ছে, বাবুলের প্রচারে দাবি অভিষেকের

  • ভোট প্রচারে এসে অভিষেক বুঝিয়ে দেন, বাবুল এই কেন্দ্রে প্রার্থী নন। প্রার্থী একজনই। তাঁর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিজেপি রাজ্যে জরুরি অবস্থা জারির চেষ্টা চালাচ্ছে। বালিগঞ্জ উপনির্বাচনে প্রচারে এসে বিজেপিকে নিশানা করে তোপ দাগলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন তৃণমূল প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়র হয়ে বালিগঞ্জে প্রচারে এসেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বালিগঞ্জে প্রচারে এসে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে নিশানা করে অভিষেক জানান, ‘‌এখানে জরুরি অবস্থা জারির চেষ্টা চালাচ্ছে বিজেপি। রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হলেও আমরা এখানে ২৫০টি আসনে জিতব।’‌ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগে অভিষেক জানিয়ে দেন, বিজেপির আসলে হার হজম হচ্ছে না। তাই ইডি ও সিবিআইকে লেলিয়ে দিয়ে নিজেদের কাজ হাসিল করতে চাইছে। আমায় সিবিআই ডাকছে। আমি গিয়েছি। তদন্তের সম্মুখীন হয়েছি। কেউ যদি ভাবে আমায় চারটে নোটিশ পাঠিয়ে আটকাবে, তাহলে ভুল ভাবছে। এদিন নাম করে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দ অধিকারীকে আক্রমণ করেই অভিষেক জানান, ‘‌যাকে কাগজে মুড়ে টাকা নিতে দেখা গেল, তিনি এখন বিজেপিতে গিয়ে সাধু হয়ে গিয়েছেন।’‌

একইসঙ্গে ভোট প্রচারে এসে অভিষেক বুঝিয়ে দেন, বাবুল এই কেন্দ্রে প্রার্থী নন। প্রার্থী একজনই। তাঁর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বাবুলের সমর্থনে পাশে দাঁড়িয়ে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে এক হাত নিলেন অভিষেক। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌বাবুল সুপ্রিয় সাংসদ পদ ছেড়ে তৃণমূলে এসেছেন। তাই তাঁকে কিছু বলার আগে নিজের বাড়ির লোকজনদের বলুন পদ ছাড়তে।’‌ উল্লেখ্য, শুভেন্দু অধিকারীর বাবা শিশির অধিকারী খাতায় কলমে এখনো তৃণমূলের সাংসদ হলেও তৃণমূলের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক শত যোজন দূরে।

বন্ধ করুন