তন্ময় ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি
তন্ময় ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি

ভাবতে লজ্জা করে উনি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী, মমতাকে কটাক্ষ সিপিএমের

  • তাপস পালকে প্রয়োজনে ব্যবহার করে ছুড়ে ফেলেন মুখ্যমন্ত্রী। এখন তাঁর মৃত্যুতে ব্যবহার করে রাজনৈতিক ফয়দা তোলার চেষ্টা করছেন, দাবি সিপিএম নেতা তন্ময় ভট্টাচার্যের

তাপস পালের দেহের সামনে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রীর রাজনৈতি ভাষণের তীব্র নিন্দায় সরব হল সিপিএমও। বুধবার উত্তর দমদমের সিপিএম বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্য এই নিয়ে আক্রমণ শানিয়ে বলেন, ‘ওনাকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ভাবতে লজ্জা করেন।’ পাশাপাশি তিনি স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাপস পালের মৃত্যুতে যতই সহানুভূতি আদায়ের চেষ্টা হোক না কেন, চৌমুহার ভাষণ ভুলতে দেবে না সিপিএম।

এদিন তন্ময়বাবু বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ যা করেছেন তার পর তাঁকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলে ভাবতে লজ্জা করছে। মুখ্যমন্ত্রীর পদের গরিমা ক্ষুণ্ণ করলেন উনি।’ গতকাল অধীর চৌধুরীর সুরে সুর মিলিয়ে তিনি বলেন, ‘গত লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে তাপস পালের কোনও খোঁজ রাখেননি মুখ্যমন্ত্রী। তাপস পাল ব্যক্তিগতভাবে অনেকের কাছে সে নিয়ে আক্ষেপ করেছেন। তাপস পালকে প্রয়োজনে ব্যবহার করে ছুড়ে ফেলেন মুখ্যমন্ত্রী। এখন তাঁর মৃত্যুতে ব্যবহার করে রাজনৈতিক ফয়দা তোলার চেষ্টা করছেন। যেভাবে তাপসী মালিকের মৃত্যুকে ব্যবহার করেছিলেন।’

বলে রাখি, বুধবার রবীন্দ্র সদনে প্রয়াত অভিনেতা তথা প্রাক্তন সাংসদ তাপস পালকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে তাঁর মৃত্যুর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে কাঠগড়ায় তোলেন মমতা। দায়ী করেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলিকেও। এর পরই বিরোধী দলগুলির তরফে তীব্র প্রতিক্রিয়া আসে। মৃতদেহের সামনে দাঁড়িয়ে রাজনৈতিক মন্তব্য করায় মমতাকে ধিক্কার জানান বাবুল সুপ্রিয়, প্রদীপ ভট্টাচার্যের মতো নেতারা।



বন্ধ করুন