বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌বিজেপি তো ডান্সিং ড্রাগন’‌, নির্বাচনী সভা থেকে পরপর তোপ দাগলেন মমতা
ভবানীপুরে ভোটপ্রচারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
ভবানীপুরে ভোটপ্রচারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

‘‌বিজেপি তো ডান্সিং ড্রাগন’‌, নির্বাচনী সভা থেকে পরপর তোপ দাগলেন মমতা

  • আগামী ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন যে পাখির চোখ তা এদিন বুঝিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী।

রবিবাসরীয় উপনির্বাচনের প্রচারে ঝড় তুললেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় সরকার এবং বিজেপিকে তুলোধনা করেছেন তিনি। এদিন নির্বাচনী সভা থেকে মমতা বলেন, ‘‌এরা জুমলা পার্টি। হেরে গিয়ে এজেন্সি পাঠাচ্ছে। বাইরে থেকে উস্কানি দিচ্ছে। আমরা চাইলে কান মুলে ফেরত পাঠিয়ে দিতে পারি।’‌ আসলে রাজনৈতিকভাবে পরাস্ত করতে চাইছে বলেই এই মন্তব্য করেছেন তিনি বলে মনে করা হচ্ছে।

আগামী ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন যে পাখির চোখ তা এদিন বুঝিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌ভবানীপুর থেকে জিতে ভারতবর্ষের লড়াই লড়তে হবে। ভুলেও ওদের ভোট দেবেন না। এখন গ্যাসের দাম প্রায় একহাজার হয়েছে। জিতলে দশ হাজার করে দেবে। ভবানীপুর জেতার পর আমরা অন্য রাজ্যেও যাব। বিজেপি শাসিত রাজ্যে কেউ থাকতে পারে না। বিজেপি জীবন নিতে জানে, দিতে জানে না। এদের দেশ ছাড়া করতেই হবে। বিজেপিকে দেশছাড়া করবই।’‌

এদিন অসমের পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, ‘‌বিজেপি তো ডান্সিং ড্রাগন। মৃতদেহ উপর উঠে নাচছে। মৃতদেহ দেখলেই ঝাঁপিয়ে পড়া কোনও পার্টির কাজ হতে পারে না। অসমে মানবাধিকার না থাকলেও সেখানে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন যায় না। তারা শুধু পশ্চিমবঙ্গে আসে।’‌ এরপরই ত্রিপুরা নিয়ে বলেন, ‘‌অভিষেক সভা করতে যাবে এই ভয়ে ১৪৪ ধারা জারি করেছে। এখন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বলছেন, আদালত কী করবে? এই মন্তব্যের জন্য ডিফেমেশন মামলা করতে পারেন তাঁর বিরুদ্ধে। আমার কাছে এই ভিডিও এসেছে, আমি আপনাদের দেব।’‌

এখন প্রধানমন্ত্রী বিদেশ সফর করে ফিরছেন। অথচ রোমে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে যেতে অনুমতি দেওয়া হয়নি। এই বিষয়ে নাম না করে তিনি বলেন, ‘‌না পারে গাইতে, না পারে নাচতে। গান করলেও স্বরলিপিটা জানতে হয়। পারে শুধু ছবি তুলতে। আমি শুধু ভাবি, কবে এরা একে অপরের ছবি দেখতে দেখতে বিরক্ত হয়ে যাবে।’‌

বন্ধ করুন