বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > School Education Department: ‘‌আনন্দ পরিসর’‌ থেকে ‘‌শিশু সংসদ’‌ কর্মসূচি নিচ্ছে শিক্ষা দফতর, কেন এমন উদ্যোগ?‌

School Education Department: ‘‌আনন্দ পরিসর’‌ থেকে ‘‌শিশু সংসদ’‌ কর্মসূচি নিচ্ছে শিক্ষা দফতর, কেন এমন উদ্যোগ?‌

শ্রেণিকক্ষের মধ্যেই শুরু হচ্ছে বিশেষ ক্লাস।

এখানে নানা বিষয়ে আলোচনাসভা, বিতর্কসভা, দেওয়াল ম্যাগাজিন প্রকাশ–সহ শিশু সংসদ করতে পারে এরকম মোট ৯টি কাজের তালিকা রাখা হয়েছে। এই শিশু সংসদের প্রেসিডেন্ট পদের দায়িত্বভার সামলাবেন স্কুলের প্রধানশিক্ষক। শিশু সংসদ সঠিকভাবে চলছে কিনা তিনি দেখবেন। সংসদের বৈঠক আয়োজন এবং রেকর্ড রাখার দায়িত্বও তাঁর।

পাঠ‌্যবই তো পড়ছে পড়ুয়ারা। কিন্তু তার বাইরে তাদের মননে নানা কৌতূহল তৈরি হচ্ছে। এবার পড়ুয়াদের মনের গহনের হদিশ পেতেই শ্রেণিকক্ষের মধ্যেই শুরু হচ্ছে বিশেষ ক্লাস। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘আনন্দ পরিসর’। এই বিশেষ ক্লাসে পাঠ্যবইয়ের বাইরে নানা বিষয়ে শিক্ষক–শিক্ষিকাদের সঙ্গে পড়ুয়াদের আলোচনা হবে। তাতে পড়ুয়াদের আত্মবিশ্বাস দৃঢ় হবে। আর মনের মধ্যে থাকা একরাশ কৌতূহলী প্রশ্ন জেনে ফেলা সম্ভব হবে। এই ‘আনন্দ পরিসর’ পরিচালনা করতে গাইডলাইনও প্রকাশ করা হয়েছে শিক্ষা দফতরের পক্ষ থেকে। আগামী শিক্ষাবর্ষ, ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাস থেকেই প্রত্যেকটি সরকারি স্কুলে এই নতুন ক্লাস চালু হতে চলেছে।

ঠিক কী গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে?‌ স্কুলশিক্ষা দফতরের গাইডলাইন অনুযায়ী, রাজ্যের প্রত্যেকটি স্কুলে প্রথম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য ‘আনন্দ পরিসর’ নামে বিশেষ ক্লাসের আয়োজন করতে হবে। প্রতি সপ্তাহে প্রতিটি শ্রেণির জন্য শনিবারের শেষ ক্লাসটিকে ‘আনন্দ পরিসর’ হিসাবে বিশেষ ক্লাস করতে হবে। এখানে শিক্ষক–পড়ুয়াদের মধ্যে পঠনপাঠনের বাইরে আলোচনা হবে। তাতে আঁকা, গান, নাটক, বৃক্ষরোপণ– সহ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা যেতে পারে। ক্লাসরুম ছবি দিয়ে সাজাতে হবে। শিক্ষকের ছবি–সহ বায়োডাটা ক্লাসরুম বা স্কুলে কোনও স্থানে সাঁটিয়ে দিতে হবে। তাতে পড়ুয়া–শিক্ষক সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ পড়ুয়াদের ব্যক্তিত্ব গড়ে তুলতে রাজ্যের প্রতিটি সরকারি স্কুলে ‘শিশু সংসদ’ গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুলশিক্ষা দফতর। তাতে ছাত্রছাত্রীরা স্কুলের ম্যানেজমেন্ট, উন্নয়ন, বিকাশ এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করতে পারবে পড়ুয়ারা। তবে এই শিশু সংসদে পঞ্চম থেকে দশম শ্রেণির পড়ুয়ারা যোগ দিতে পারবে। এই সংসদেও মন্ত্রিসভা থাকছে। রান্না করা মিড–ডে মিল এবং কিচেন গার্ডেন রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকবে একজন খাদ্যমন্ত্রী। পরিষ্কার–পরিচ্ছন্নতা এবং পানীয় জলের দায়িত্বে পিএইচই মন্ত্রী। পড়ুয়াদের স্বাস্থ্যের জন্য থাকবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এমনকী প্রধানমন্ত্রী পদও থাকতে পারে।

কী কী কর্মসূচি নেওয়া হবে?‌ এখানে নানা বিষয়ে আলোচনাসভা, বিতর্কসভা, দেওয়াল ম্যাগাজিন প্রকাশ–সহ শিশু সংসদ করতে পারে এরকম মোট ৯টি কাজের তালিকা রাখা হয়েছে। এই শিশু সংসদের প্রেসিডেন্ট পদের দায়িত্বভার সামলাবেন স্কুলের প্রধানশিক্ষক। শিশু সংসদ সঠিকভাবে চলছে কিনা তিনি দেখবেন। সংসদের বৈঠক আয়োজন এবং রেকর্ড রাখার দায়িত্বও তাঁর। পড়ুয়াদের নেতৃত্বসুলভ গুণাবলী ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করবে এই শিশু সংসদ বলে মনে করা হচ্ছে।

বাংলার মুখ খবর

Latest News

২১ জুলাইয়ে ৭ জেলায় সতর্কতা, ভারী বৃষ্টি চলবে তারপরেও, নিম্নচাপের প্রভাব কতদিন? 2025 IPL-এ কত জনকে রিটেন করা যাবে? স্যালারি ক্যাপ কি হবে?ঠিক হতে পারে মাসের শেষে ‘আমি রাজাকার’, সবথেকে ‘ঘৃণ্য’ শব্দই কীভাবে বাংলাদেশের পড়ুয়াদের স্লোগান হয়ে উঠল? শুভাশিসের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে মনামী? ৪০-এ এসে আইবুড়ো নাম ঘোচানোর তোড়জোর শুরু সুযোগ পেতে খারাপ ছেলে হতে হবে… রুতুরাজকে বাদ দেওয়ায় চটেছেন ভারতের প্রাক্তনী ২২ বছর আগের দুর্গাষ্টমীতে শুরু প্রেম, ২০ দিন আগে শেষবার একফ্রেমে যিশু-নীলাঞ্জনা! ২১ জুলাই কলকাতায় কোন কোন রাস্তায় গাড়ি ঘোরানো হবে? কোথায় পার্কিং নেই? রইল তালিকা মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্নের মুখে বিধায়ক সাবিত্রী মিত্র, একুশের সভায় নতুন কী মিলবে?‌ আম্বানিদের বিয়েতে নাচানাচি,চেন্নাই যাওয়ায়ই কাল! হাসপাতাল থেকে ঘরে ফিরলেন জাহ্নবী টেকনিক্যাল কমিটিকে অন্ধকারে রেখেই কোচ বাছাই, রেগে লাল বাইচুং, দিলেন ইস্তফা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.