বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একমাত্র লক্ষ্য বিরোধী দলনেতাকে আটকাও: শুভেন্দু
বুধবার স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।
বুধবার স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একমাত্র লক্ষ্য বিরোধী দলনেতাকে আটকাও: শুভেন্দু

  • রাজ্য সরকারের সমালোচনা করে শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘রাজ্য সরকার বিরোধী দলনেতাকে ভয় পায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একমাত্র লক্ষ্য হল বিরোধী দলনেতাকে আটকাও।’

গঙ্গাসাগর মেলার নজরদারি কমিটি থেকে আদালত তাঁর নাম বাদ দেওয়ায় রাজ্য সরকারকে বিঁধলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বুধবার স্বামী বিবেকান্দরের বাসভবনে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণের পর শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘আমি পদ পাওয়ার জন্য ললায়িত নই। রাজ্য সরকার বিরোধী দলনেতাকে ভয় পায়।’

বুধবার সিমলা স্ট্রিটে স্বামীজির বাসভবনে তাঁকে শ্রদ্ধা জানান শুভেন্দু অধিকারী। এর পর তিনি বলেন, ‘আমি কমিটির সদস্য হওয়ার জন্য আদালতে আবেদন করিনি। এটা ব্যক্তি শুভেন্দু অধিকারীর ব্যাপার নয়। প্রশ্নটা বিরোধী দলনেতা পদকে নিয়ে। বিচারপতির ইচ্ছা হয়েছিল তাই কমিটিতে রেখেছিলেন। আবার তাঁর মনে হয়েছে বলে বাদ দিয়েছেন। এটা রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্যপ্রণোদিত পদক্ষেপ। তবে আদালতের নির্দেশকে সম্মান করা উচিত।’

রাজ্য সরকারের সমালোচনা করে শুভেন্দুবাবু বলেন, ‘রাজ্য সরকার বিরোধী দলনেতাকে ভয় পায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একমাত্র লক্ষ্য হল বিরোধী দলনেতাকে আটকাও।’

বলে রাখি, গঙ্গাসাগর মেলায় করোনাবিধি মানা হচ্ছে কি না তার ওপর নজরদারির জন্য প্রথমে তিন সদস্যের কমিটি গড়েছিল কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ। যদিও মামলাকারীদের আপত্তিতে পুরনো কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন ২ সদস্যের কমিটি গড়ে আদালত। তাতে রয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় ও লিগাল সার্ভিসেসের সচিব।

 

বন্ধ করুন