বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > RG Kar Medical College and Hospital: আরজিকরে নতুন অধ্যক্ষকে ঢুকতে বাধা পড়ুয়াদের, বৈঠকে কাটল জট

RG Kar Medical College and Hospital: আরজিকরে নতুন অধ্যক্ষকে ঢুকতে বাধা পড়ুয়াদের, বৈঠকে কাটল জট

আরজিকরে পড়ুয়াদের বিক্ষোভ। নিজস্ব ছবি

প্রাক্তন অধ্যক্ষ সন্দীপ ঘোষের বদলির নির্দেশিকা ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছিল। তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজের অর্থপেডিক বিভাগের অধ্যাপক পদে বদলি করা হয়েছে। তাঁর জায়গায় আনা হয়েছে বারাসত মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ মানস বন্দ্যোপাধ্যায়কে। 

আরজিকর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অধ্যক্ষকে ঘিরে বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না। শুক্রবার মেডিক্যাল কলেজের নতুন অধ্যক্ষ ডা. মানস বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, প্রাক্তন অধ্যক্ষ সন্দীপ ঘোষের অনুগামীরা তাঁকে ঢুকতে বাধা দেয়। তাঁদের দাবি, মানস বাবুকে কাজে যোগ না দেওয়ার অনুরোধ করা সত্ত্বেও তিনি যোগ দিয়েছেন। এই খবর পেয়ে এদিন সেখানে পৌঁছে যান রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান তথা সাংসদ শান্তনু সেন। পরিচিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে বিশাল পুলিশ বাহিনী পৌঁছয়। পরে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ছাত্রদের নিয়ে একটি বৈঠক করে। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে আগামীকাল নিজের চেম্বারে বসবেন নবনিযুক্ত অধ্যক্ষ।

আরও পড়ুন: সন্দীপ ঘোষকেই অধ্যক্ষ চাই, আরজিকরে দাবি ছাত্রদের, মানল না স্বাস্থ্য দফতর

প্রসঙ্গত, প্রাক্তন অধ্যক্ষ সন্দীপ ঘোষের বদলির নির্দেশিকা ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছিল। তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজের অর্থপেডিক বিভাগের অধ্যাপক পদে বদলি করা হয়েছে। তাঁর জায়গায় আনা হয়েছে বারাসত মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ মানস বন্দ্যোপাধ্যায়কে। মঙ্গলবার তিনি আরজিকরে কাজে যোগ দিতে গেলে তাঁকে বাধা দেয় সন্দীপ ঘোষের অনুগামীরা। তারপর থেকেই পড়ুয়াদের আন্দোলন অব্যহত রয়েছে। তাদের বক্তব্য, মুখ্যমন্ত্রীর অনুপস্থিতিতে এই নিদেশিকা জারি করা হয়েছে। তাই মুখ্যমন্ত্রী পৌঁছলে তারা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন। তারা চাইবেন যেন সন্দীপ ঘোষকেই অধ্যক্ষ হিসেবে রাখা হয়। তাদের বক্তব্য, সন্দীপ ঘোষ অধ্যক্ষ থাকাকালীন অনেক উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। তাই তারা তাঁকে অধ্যক্ষ হিসেবে চান।

এদিন সকালে ডা. মানস বন্দ্যোপাধ্যায়কে সংবর্ধনা দিতে গিয়েছিলেন একদল পড়ুয়া। অভিযোগ, প্রাক্তন অধ্যক্ষ সন্দীপ ঘোষের অনুগামীরা তাঁদের বাধা দেয়। এদিন অবশ্য দীর্ঘক্ষণ আটকে থাকার পর নিজের অফিস অ্যাকাডেমিক বিল্ডিংয়ে যান। এরপরেই বৈঠক হয়। এদিন বৈঠক শেষে শান্তনু সেন বলেন, ‘ছাত্রদের নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারা কথা দিয়েছে আগামীকাল তারা নিজেই অধ্যক্ষকে সসম্মানে তাঁর চেম্বারে নিয়ে গিয়ে বসাবে। আগের অধ্যক্ষ ভালো কাজ করেছেন। স্বাভাবিকভাবেই ওনার সঙ্গে ছাত্রদের ভালো সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল। তাই তারা কিছুতেই ছাড়তে পারছিলেন না। তবে এই সমস্যার সমাধান হয়েছে।’

 

 

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

কমনওয়েলথ দাবা চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলার জয় জয়কার, সোনা জিতলেন মিত্রাভ গুহ বস্তির ভিতর আচমকা ধনকুবের বিল গেটস! বাসিন্দাদের সঙ্গে চলল কথাবার্তা, কোথায় ঘটল? এবার ভারতের সিভিলিয়ান টিম পৌঁছল মলদ্বীপে, সরবে ভারতীয় সেনা IPL-র ‘লড়াই’ ছাপিয়ে হাত মেলাল রিলায়েন্স-ডিজনি, নজরে ৭০০০০ কোটি টাকার সাম্রাজ্য বাড়ির কর্তার মৃত্যুশোকে ঘরবন্দি ২২ দিন,উদ্ধার করেও হল না শেষরক্ষা,মারা গেল ছেলে ব্যথাতা কাটাতে শাকিবদের নতুন ব্যাটিং এবং বোলিং কোচ নিযুক্ত করল বিসিবি তৃণমূলের ব্রিগেডের দিন শহরে ডার্বিতে মুখোমুখি মোহন-ইস্ট, আদৌ হবে বড় ম্যাচ? ৩৭ বছরে পা দিলেন হেজেল, স্ত্রীর জন্মদিনে বিশেষ শুভেচ্ছা জানিয়ে কী করলেন যুবরাজ ২৫ কেজি ওজন কমেছে, জেলে পড়ে গিয়ে ফেটেছে মাথা, আদালতে জানালেন বালুর আইনজীবী এক দেশ-এক ভোট নিয়ে সংবিধানে যুক্ত হতে পারে নয়া অধ্য়ায়, টার্গেট ২০২৯

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.