বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > টলি অভিনেত্রীকে ধর্ষণের হুমকি, বেলঘড়িয়া থেকে গ্রেফতার অভিযুক্ত
টলি অভিনেত্রীকে ধর্ষণের হুমকি, বেলঘড়িয়া থেকে গ্রেফতার অভিযুক্ত (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
টলি অভিনেত্রীকে ধর্ষণের হুমকি, বেলঘড়িয়া থেকে গ্রেফতার অভিযুক্ত (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

টলি অভিনেত্রীকে ধর্ষণের হুমকি, বেলঘড়িয়া থেকে গ্রেফতার অভিযুক্ত

  • বৃহস্পতিবার ধৃতকে আদালতে তোলা হলে ৩০ জুলাই পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। অভিযুক্তের বাড়ি থেকে ল্যাপটপ, রাউটার-‌সহ বেশ কিছু বৈদ্যুতিন যন্ত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইন ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে।

ছোট পর্দার অভিনেত্রীকে লাগাতার ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে বেলঘড়িয়া থেকে গ্রেফতার করা হল অভিযুক্তকে। বাড়ি থেকে ওই অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করেছে ‌লালবাজারের সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার ধৃতকে আদালতে তোলা হলে ৩০ জুলাই পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

 অভিযুক্তের বাড়ি থেকে ল্যাপটপ, রাউটার-‌সহ বেশ কিছু বৈদ্যুতিন যন্ত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইন ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম ঐশিক মজুমদার। ওদিকে ছোট পর্দার বাংলা সিরিয়ালে অভিনয় করেন নির্যাতিতা ওই অভিনেত্রী। গত এক বছর ধরে ওই অভিনেত্রীর সোশ্যাল মিডিয়ায় হুমকির ম্যাসেজ আসতে থাকে। প্রথম দিকে নির্যাতিতা ওই অভিনেত্রী ততটা গুরুত্ব দেননি। কিন্তু পরে তাঁকে ধর্ষণের হুমকি দিতে শুরু করে অভিযুক্ত।

গত বছরেই নির্যাতিতা লালবাজারের সাইবার ক্রাইম থানার দ্বারস্থ হন। তিনি মেল করে অভিযোগ জানিয়েছিলেন। অভিযোগ, এর পর থেকে হুমকির পরিমাণ আরও বেড়ে যায়। অভিনেত্রীর মা ও তাঁর হেয়ার ড্রেসারকেও হুমকি দেয় অভিযুক্ত যুবক। গত এক সপ্তাহ ধরে সমস্ত বাঁধ ভেঙে দেয় ওই যুবক। অভিনেত্রীকে একের পর এক হুমকির ম্যাসেজ করতে শুরু করে। শুধু তাই নয়, একটি অশ্লীল ছবি ‘‌মর্ফড’‌ করে অভিনেত্রীর মুখ বসিয়ে পর্ণোগ্রাফিক সাইটে পোস্টও করে দেয় ঐশিক বলে অভিযোগ অভিনেত্রীর ।

এই ঘটনার পরই সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন ওই অভিনেত্রী। আতঙ্কিত ওই অভিনেত্রী লালবাজারে গিয়ে সমস্ত ঘটনার পুনরায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশকে সমস্ত তথ্যও তুলে দেন নির্যাতিতা। এর পরেই তদন্তে নেমে অভিযুক্তকে তার বেলঘড়িয়ার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেন গোয়েন্দারা।

 

বন্ধ করুন