বাংলা নিউজ > কর্মখালি > WB Budget 2024: ট্রেনিং দিতে বরাদ্দ ২০০ কোটি টাকা! রাজ্যে এবার ‘অ্যাপ্রেন্টিস’ প্রকল্প, সুবিধা পাবেন কারা?

WB Budget 2024: ট্রেনিং দিতে বরাদ্দ ২০০ কোটি টাকা! রাজ্যে এবার ‘অ্যাপ্রেন্টিস’ প্রকল্প, সুবিধা পাবেন কারা?

ট্রেনিং দিতে বরাদ্দ ২০০ কোটি টাকা!

WB Budget 2024: আরও একটি নতুন প্রকল্পের কথা ঘোষণা রাজ্য সরকারের। আজ, বৃহস্পতিবার বিধানসভায় রাজ্য বাজেট পেশ করার সময় রাজ্যের অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য অ্যাপ্রেন্টিস প্রকল্প চালু করার কথা জানিয়েছেন।

কেন্দ্রের লাখপতি দিদির মতো রাজ্যে চালু অন্য প্রকল্প। মেয়েদের পাশাপাশি ছেলেরাও সুবিধা পাবেন এই প্রকল্পে। কর্মসংস্থানের জন্য প্রশিক্ষণ পাবেন, সঙ্গে মিলবে আর্থিক সুবিধাও।

আজ, ৮ ফেব্রুয়ারি, বিধানসভায় রাজ্য বাজেট পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। কর্মসংস্থানে যুবক যুবতীদের আর্থিক সাহায্য দিতে কর্মশ্রী প্রকল্পের পাশাপাশি আরও একটি নতুন প্রকল্প চালু করার কথা জানালেন তিনি। ওই প্রকল্পের নাম অ্যাপ্রেন্টিস প্রকল্পে। এই নতুন প্রকল্পের বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, 'এই প্রকল্পে প্রতি বছর ১ লক্ষ যুবক-যুবতী উপকৃত হবেন। এই খাতে আমি ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করছি।'

  • অ্যাপ্রেন্টিস প্রকল্পের সুবিধা

অ্যাপ্রেন্টিস প্রকল্পের অধীনে বিভিন্ন শিল্পক্ষেত্রে প্রশিক্ষণের সুবিধা মিলবে। যে যুবক-যুবতীরা এই প্রকল্পের আওতায় ট্রেনিং নেবেন, তাঁদের মাসে ১,৫০০ টাকা থেকে ২,৫০০ টাকা পর্যন্ত বেতন দেওয়া হবে। প্রতি বছর কমপক্ষে ১ লাখ যুবক-যুবতী লাভবান হবেন।

উল্লেখ্য, এদিন বাজেট অধিবেশনে অর্থ দফতরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য অ্যাপ্রেন্টিস প্রকল্পের সুবিধা সম্পর্কে আরও জানিয়েছেন, 'এই প্রকল্পে রাজ্য সরকার বিভিন্ন স্কুল এবং মাদ্রাসাতে Vocational Training Centre (ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টার থেকে পাশ করা ছাত্রছাত্রীদের, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (ITI) এবং Polytechnic (পলিটেকনিক) থেকে পাশ করা এবং যুবশ্রী প্রকল্পে নথিভুক্ত ১৮ থেকে ৪০ বছর পর্যন্ত বয়সি যুবক-যুবতীদের বিভিন্ন শিল্পক্ষেত্রে প্রশিক্ষণে সহায়তা দেবে। বিভিন্ন শিল্প সংস্থাতে এইসব ট্রেনিদের প্রশিক্ষণের সূচি অনুযায়ী অতিরিক্ত মাসিক ১,৫০০ টাকা থেকে ২,৫০০ টাকা পর্যন্ত Stipend (স্টাইপেন্ড) দেওয়া হবে।'

গত বছর বাজেটেই পড়ুয়াদের জন্য ভবিষ্যৎ ক্রেডিট কার্ড নামে ঋণ প্রকল্প চালু করা হয়েছিল। এই প্রকল্পের আওতায় ১৮ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে বয়সী ২ লক্ষ যুবক-যুবতী কোনো ব্যবসা বা কর্ম সংস্থানের সুযোগের জন্য আর্থিক সহায়তা পেয়েছে, ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। আর এবার ২০২৪ সালে দাঁড়িয়ে এই প্রকল্পটিকে আরও শক্তিশালী করার উদ্যোগ দিতে চায় রাজ্য সরকার। এ প্রসঙ্গে, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য ভবিষ্যৎ ক্রেডিট কার্ড সাব-ভেনশন স্কিম চালু করার প্রস্তাব রেখেছেন। এই স্কিমের আওতায় প্রত্যেক যোগ্য উদ্যোগপতিরা ১০০% নিশ্চিত ঋণ পেতে পারবেন। সুদের হার হবে মাত্র ৪%। বাকি সুদের ব্যয়ভার রাজ্য সরকার নেবে। আর এই পুরো প্রকল্পটি সঠিকভাবে কোনোরকম আর্থিক বাধা ছাড়াই পরিচালনা করার জন্য বার্ষিক ২৫০ কোটি টাকার বরাদ্দ করা হয়েছে। এই প্রকল্পের অধীনে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে প্রায় ১০ লক্ষ যুব উদ্যোগপতি উপকৃত হবেন বলেও জানিয়েছেন রাজ্যের প্রতিমন্ত্রী।

কর্মখালি খবর

Latest News

স্বামী, শাশুড়ি, ননদ সকলেই প্রাক্তন, তবু চারু বলছেন, তাঁদেরকেই ভালোবাসেন... 'লোকে আমায় এখনো মেয়েবাজ, চিটিংবাজ বলে', অকপট রণবীর, মেয়ের বাবা হয়েও স্বভাব… একঝলকে টেস্ট ফরম্যাটে উইন্ডিজের গত পাঁচটি বড় ইনিংসের তথ্য... সীমান্তে বন্ধ বাণিজ্য, উত্তাল বাংলাদেশের প্রভাব পড়ল আমদানি–রফতানিতে স্নেহাশিস-অর্পিতার বিয়েতে থাকছেন না সৌরভ! দাদা দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে অখুশি মহারাজ? তিন ফরম্যাটে ভারত অধিনায়ক হিসেবে সবচেয়ে বেশি রান কাদের? ‘‌এটা বাংলা-দেশের অস্তিত্ব রক্ষার সভা’‌, প্রস্তুতি দেখে ধর্মতলায় বার্তা মমতার বাংলাদেশে মহিলা T20 WC-এর নিরাপত্তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন, পরিস্থিতিতে চোখ রাখছে ICC হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে পরিচালক অনিন্দিতা সর্বাধিকারী, হল অস্ত্রোপচার আগামিকাল কেমন কাটবে আপনার? ভাগ্য থাকবে কি পাশে? জানুন ২১ জুলাইয়ের রাশিফল

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.