বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > KKK11: হাসিখুশি ছবি পোস্ট করে সম্পর্কের রসায়ন বোঝালেন 'খতরো কে খিলাড়ি'-রা!
দিব্যি আছেন 'খতরো কি খিলাড়ি ১১'-র প্রতিযোগীরা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
দিব্যি আছেন 'খতরো কি খিলাড়ি ১১'-র প্রতিযোগীরা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

KKK11: হাসিখুশি ছবি পোস্ট করে সম্পর্কের রসায়ন বোঝালেন 'খতরো কে খিলাড়ি'-রা!

  • সাউথ আফ্রিকার কেপটাউনে চলছে 'খতরো কি খিলাড়ি'-র ১১ নম্বর সিজনের শ্যুটিং। শোয়ের প্রতিযোগীরা যে নিজেদের মধ্যে দারুণ সময় কাটাচ্ছেন,তা বোঝা তাঁদের আপলোড করা হাসিখুশি ছবির সুবাদেই।

প্রতিযোগী হলেই যে পরস্পরের প্রতি সদাসতর্ক থাকতে হবে, সন্দিহান হতে হবে প্রতিটি বিষয়ে এমন কোনও কপিবুক নিয়ম যে অন্তত 'খতরো কি খিলাড়ি'-তে অংশগ্রহনকারীরা প্রতিযোগীরা মানছেন না তা স্পষ্ট। প্রতিযোগিতার ফাঁকে মাঝেমধ্যেই অন্তরঙ্গ সময় কাটাচ্ছেন প্রতিযোগীরা। যত 'লড়াই' যতক্ষণ খেলা চলে, ক্যামেরা চলতে শুরু করে ততক্ষণই। এর বাইরে তাঁরা শুধুই বন্ধু। দেশ থেকে দূরে যেন পিকনিকে এসেছেন এমন হাবভাব নিয়েই দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন তাঁরা। কখনও জোট বেঁধে আড্ডায় মাতছেন, কখনও এ ওঁর পিছনে লাগছে। চলছে খুনসুটি। সেসব মুহূর্তের নানা ছবিই প্রতিযোগীরা তাঁদের সোশ্যাল মিডিয়ার দেওয়ালে সাঁটাচ্ছেন। এইমুহূর্তে সাউথ আফ্রিকার কেপ টাউনে চলছে ছোটপর্দার অন্যতম এই রিয়েলিটি শোয়ের শ্যুটিং।

সম্প্রতি, ইনস্টাগ্রামে নিজেদের একটি হাসিখুশি ছবি পোস্ট করেছেন এই রিয়েলিটি শোয়ের ১১ নম্বর সিজনের অন্যতম প্রতিযোগী অর্জুন বিজলানি। ছবিতে দেখা যাচ্ছে,কেয়ারি করা একটি ঘাসের লনে হাঁটু গেড়ে দু'দিকে বসে রয়েছেন রাহুল বৈদ্য এবং দিব্যাঙ্কা।ঠিক তাঁদের পিছনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন শ্বেতা,অর্জুন এবং বিশাল। সূর্যের আলো এসে পড়ছে তাঁদের চওড়া হাসিমুখে। রাহুলকে আল্টো করে জড়িয়ে রেখেছেন শ্বেতা। অন্যদিকে, দু'পাশে হাত ছড়িয়ে 'পোজ' দিচ্ছেন একেবারে পিছনের সারিতে দাঁড়িয়ে থাকা বিশাল। বলাই বাহুল্য, নেটিজেনরা প্রতিযোগীদের এই 'স্পোর্টিং'মনোভাবের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

 

প্রসঙ্গত, এই অ্যাডভেঞ্চার রিয়েলিটি শোয়ে এঁরা ছাড়াও রয়েছেন বরুণ সুদ, নিক্কি তাম্বোলি,সানা মকবুল,সৌরভ রাজ জৈন এর মতো প্রমুখ ছোটপর্দার পরিচিত ব্যক্তিত্বরা। শোয়ের সঞ্চালক হিসেবে ফের একবার দেখা যাবে বলিউডের 'হিট মেশিন' রোহিত শেট্টিকে। এই নিয়ে টানা সাত নম্বর এই রিয়েলিটি শোয়ের সিজনের সঞ্চালনার ভার সামলাচ্ছেন এই বলি-পরিচালক। স্বাভাবিকভাবে এই শোয়ে আসতে তিনি নিজেও যে খুশি তা ইনস্টাগ্রামে ব্যক্তও করেছেন রোহিত। সঙ্গে আপলোড করেছেন নিজের একটি ছোট্ট ভিডিও।

 

বন্ধ করুন