বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কলকাতার মেয়ের পরিচালিত তথ্যচিত্র ‘ভূমচু’, লড়ছে ইতালির এক জোড়া উৎসবে
তথ্যচিত্র ‘ভূমচু’র শ্যুটিং চলাকালীন ছবি
তথ্যচিত্র ‘ভূমচু’র শ্যুটিং চলাকালীন ছবি

কলকাতার মেয়ের পরিচালিত তথ্যচিত্র ‘ভূমচু’, লড়ছে ইতালির এক জোড়া উৎসবে

  • ভূমচু হল পশ্চিম সিকিমের একটি বর্ণময় বৌদ্ধ উৎসব। এর মূল পর্বটি অনুষ্ঠিত হয় তাসিডিং মনেস্টারিতে। ভূমচু নামক পাত্রে জলকে সংরক্ষণ করে রাখা রয়েছে প্রায় ৩৭৫ বছর ধরে। তাই নিয়ে এই তথ্যচিত্র।

সিকিমের বৌদ্ধ জল সংরক্ষণ আচার বিষয়ক তথ্যচিত্র 'ভূমচু'। তথ্যচিত্রের পরিচালনায় কলকাতার মেয়ে অবন্তী সিনহা। ছবিটি প্রযোজনা করেছে সিকিম সরকারে তথ্য ও জনসংযোগ দফতর। 

ড্রিমস্কেপ ফিল্মস নির্মিত ৪০ মিনিটের এই তথ্যচিত্রটি লড়ছে ইতালির দুটি উৎসবে। প্রথমটি, রিভার টু রিভার ফ্লোরেন্স ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল (21 River to River Florence Indian Festival), যার আয়োজক ইতালির ইন্ডিয়ান এমব্যাসি। এবং দ্বিতীয়টি হল সাসারির ফিয়োরেনজো সেরা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল (Fiorenzo Serra Film Festival)। সাসারি বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ছবিটি সংরক্ষিত হবে পরবর্তীকালের গবেষণামূলক কাজের জন্য। কেরল রাজ্য মিউজিয়াম দ্বারা আয়োজিত মিউজিয়াম টকিজ আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে এই তথ্যচিত্র জিতে নিয়েছে ‘Intangible Heritage of India’ বিভাগের সেরা তথ্যচিত্রের সম্মান।

তথ্যচিত্র 'ভূমচু'র পোস্টার
তথ্যচিত্র 'ভূমচু'র পোস্টার

ভূমচু হল পশ্চিম সিকিমের একটি বর্ণময় বৌদ্ধ উৎসব। এর মূল পর্বটি অনুষ্ঠিত হয় তাসিডিং মনেস্টারিতে। পরবর্তী বছর সিকিমের সময় কেমন যাবে তা এই উৎসব কালে বিশেষ পদ্ধতিতে আগাম মানুষকে জানাতে পারেন বৌদ্ধ সন্ন্যাসীরা। ভূমচু নামক পাত্রে জলকে সংরক্ষণ করে রাখা রয়েছে প্রায় ৩৭৫ বছর ধরে। এই জল গুরু পদ্মসম্ভবের দ্বারা মন্ত্রপূত। রাজ্যের মানুষের বিশ্বাস এই জলেই লুকানো রয়েছে দীর্ঘায়ু হওয়ার ও আনন্দময় থাকার বীজমন্ত্র। এই জল পেতে সুদূর জাপান, ভূটান, লাদাখ, নেপাল থেকে ভক্ত মানুষ ভিড় জমান তাসিডিংয়ে।

ভূমচু পাত্রটি
ভূমচু পাত্রটি

হিন্দুস্তান টাইমস বাংলাকে পরিচালক অবন্তী জানিয়েছেন, সারা পৃথিবী জুড়ে এখন যেখানে প্রকৃতির অমূল্য সম্পদ জল সংরক্ষণ করা নিয়ে বিস্তর পরিকল্পনা চলেছে, বহু যুগ আগে কিন্তু বৌদ্ধ ধর্মে এই বিষয়টি অত্যন্ত তাৎপর্যের সঙ্গে দেখা হয়েছিল। এর আগে কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রকের প্রযোজনায় ‘ইন সার্চ অফ পরভা ছৌ’, ৪৭ মিনিট দৈর্ঘ্যের একটি তথ্যচিত্র তৈরি করেছিলেন অবন্তী।

পরিচালক অবন্তী সিনহা
পরিচালক অবন্তী সিনহা

তিনি বলেন, ‘জল আমাদের জীবনের প্রতিটি অধ্যায়ের সঙ্গে যুক্ত। শ্যুটিং টিম নিয়ে সিকিমের প্রত্যন্ত পাহাড়ে ডকু শ্যুট করতে গিয়ে দেখেছি, কেমন করে এক চমৎকার উৎসবের মধ্যস্থতায় আসলে মানুষকে জলের গুরুত্ব সম্পর্কেই সচেতন করা হয়েছে। তাই কেবলমাত্র কোনও বৌদ্ধ উৎসব নয়, মানুষের মধ্যে জলের সচেতনতা বাড়ানোর বার্তাও তথ্যচিত্রে রয়েছে। সেদিক দিয়ে দেখলে এটি দেশ, বর্ণ, ধর্ম নির্বিশেষে সকলের কাছেই সমান গুরুত্বপূর্ণ বলে আমি মনে করি’।

 

বন্ধ করুন