বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > সহবত শেখাতে গিয়েছিলেন নুসরত জাহান! পালটা উত্তর পেলেন 'প্রাক্তন' নিখিল জৈনের থেকে, মত নেটিজেনদের
নিখিল ও নুসরত। (ফাইল ছবি)
নিখিল ও নুসরত। (ফাইল ছবি)

সহবত শেখাতে গিয়েছিলেন নুসরত জাহান! পালটা উত্তর পেলেন 'প্রাক্তন' নিখিল জৈনের থেকে, মত নেটিজেনদের

  • একের পর এক ‘সোশ্যাল’ হামলা চলছে নুসরত জাহানকে ঘিরে!

বৃহস্পতিবার সকালে আমজনতা অর্থাৎ নেট-নাগরিকদের সহবতের পাঠ পরিয়েছিলেন নুসরত জাহান। তখনও হয়তো বোঝেননি উত্তরটা এভাবে আসবে। গোলাপি রঙের পোশাক এবং রোদ চশমায় নিজের দু'টি ছবি শেয়ার করে নুসরত লিখেছিলেন, ‘মানবজমিনে একটু সার দিলাম যাতে তারা বেড়ে ওঠে’। অর্থাৎ বিয়ে, সংসার, সন্তানের পিতৃ পরিচয় অথবা সিঁদুর-শাখা পরা নিয়ে তাঁকে যাঁরা ট্রোল করছেন, তাঁদেরই একহাত নিয়েছিলেন। কিন্তু সেই পোস্টেই লাগাতার আক্রমণ সহ্য করতে হল নুসরতকে। এমনকী, অভিনেত্রীর মৃত্যু কামনা করে একজন লিখলেন, ‘মৃত্যুর আগে জানিয়ে দাও তোমাকে দাহ করা হবে নাকি দফন?’

ছেড়ে কথা বললেন না ‘প্রাক্তন সহবাস সঙ্গী’ নিখিল জৈনও। ঠিক তার পরপরই নিজের ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখলেন, ‘আগে নিজের মাথাকে কিছু খাবার দাও আর নিজের আত্মার বিকাশ ঘটাও।’ নিজের এই পোস্টে সাধারণ মানুষকে পাশে পেয়েছেন নিখিল। সকলেই লিখেছেন, ‘তুমি যেভাবে পরিস্থিতিকে মানিয়ে নিয়ে চলছ তা অতুলনীয়।’

প্রসঙ্গত, নুসরতের মা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতেই নিখিল জৈন জানিয়েছিলেন সন্তানের বাবা তিনি নন। যদিও পরে নুসরত নিজেও জানিয়েছেন তিনি ও নিখিল বহুমাস ধরেই আলাদা আছেন। এমনকী, তুরস্কতে যে ‘বিয়ে’ হয়েছিল তাঁর তা ভারতে ‘বৈধ’ নয় কারণ আইনত তাঁদের বিয়ে হয়নি বলেও এক বিবৃতিতে জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। আপাতত শোনা যাচ্ছে, ‘বিশেষ বন্ধু’ যশের সাথেই আছেন তিনি। ছুটির দিন একসাথেই ঘুরতে যাচ্ছেন। 

এদিকে আবার, নিখিলের নাম জড়িয়েছে বলিউডের বাঙালি অভিনেত্রী ত্রিধার সঙ্গে। মুম্বই থেকে ত্রিধা কলকাতা এলে দু'জনে একসঙ্গে কফিডেটে গিয়েছিলেন। যদিও নিখিল-ত্রিধার দাবি, তাঁরা শুধুই বন্ধু। অন্য কোনও সম্পর্ক তাঁদের মধ্যে নেই।

বন্ধ করুন