বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > লকডাউনে 'কেস জন্ডিস' অঙ্কুশ-পরমব্রতর, কে জিতবেন এই কেসে?
কেস জন্ডিসের পোস্টার 
কেস জন্ডিসের পোস্টার 

লকডাউনে 'কেস জন্ডিস' অঙ্কুশ-পরমব্রতর, কে জিতবেন এই কেসে?

  • কোন দিকে মোড় নেবে এই জন্ডিস কেস, তা জানতে অপেক্ষা কিছু সময়ের।

করোনা সংকট, লকডাউনে প্রত্যেক মানুষের জীবনে এখন সত্যিই 'কেস জন্ডিস' পুরো। এই কঠিন পরিস্থিতিতে মানুষের মুখ হালকা হাসি ফোটাতে অঙ্কুশ আর পরমব্রত নিয়ে হাজির হচ্ছেন 'কেস জন্ডিস'। হইচইয়ের নতুন ওয়েব সিরিজ।

এক্কেবারে ফ্রেস কনটেন্ট। করোনাভাইরাস থিমের কথা মাথায় রেখেই তৈরি হয়েছে এই সিরিজ। কেস জন্ডিসের সঙ্গেই ওয়েব দুনিয়ায় জার্নি শুরু করলেন অঙ্কুশ হাজরা। বুধবার সামনে এসেছিল এই ওয়েব সিরিজের ফার্স্ট লুক পোস্টার, বৃহস্পতিবার সামনে এল ট্রেলার।

পরম-অঙ্কুশ ছাড়াও কেস জন্ডিসে দেখা মিলবে অনিবার্ণ চক্রবর্তীর, যিনি পরিচিত একেন বাবু নামেই। ১৫ মে থেকে হইচইতে স্ট্রিমিং শুরু হবে হাস্যরসে ভরপুর এই ওয়েব সিরিজের। লকডাউনের সব নিময় মেনে যে যার বাড়ি বসেই এই ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং সেরেছেন অঙ্কুশ,পরমব্রতরা। জানা গিয়েছে মোট ১০টি এপিসোড রয়েছে কেস জন্ডিসের। সিরিজ পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন শুভঙ্কর চট্টোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার একদম অভিনব পদ্ধতিতে লঞ্চ হল কেস জন্ডিসের ট্রেলার। ভ্যারচুয়াল প্রেস কনফারেন্সে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হল টিম কেস-জন্ডিস। অঙ্কুশ বলেন, 'এখন দর্শকদের কাছে মনোরঞ্জন পৌঁছে দেওয়া খুব দরকার। ঘরে বসে তারা যেন একটু হাসাহাসি মজা করে দিন কাটাতে পারেন। কেস জন্ডিসে একদম এখনকার মুহুর্তগুলিকে তুলে ধরা হয়েছে। যা প্রতিদিন ঘটছে আমাদের সঙ্গে। আমি আশা করছি আমাদের এই প্রয়াস সবার ভাল লাগবে।'

ওয়েব সিরিজে আগেও অভিনয় করেছেন পরমব্রত। তবে প্রথমবার হইচইয়ের ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে তাঁকে। কেমন ছিল অভিজ্ঞতা? ‘এই মুহুর্তে বিশ্বের সব প্রান্তের মানুষ এই গল্পটার সঙ্গে রিলেট করতে পারবেন। আমরা একটা ক্রাইসিসের মধ্য দিয়ে চলেছি আর এই সময় এরকম গল্প খুব প্রয়োজন যা আমাদের একঘেয়ে জীবনে একটু অন্যরকম স্বাদ আনবে, একটু আনন্দ দেবে’, বললেন পরমব্রত। 

একটি কোর্টরুম ড্রামাকে ঘিরে তৈরি হয়েছে কেস জন্ডিস। সিরিজে দুই আইনজীবী মিস্টার সেন ও মিস্টার দাস-যে চরিত্রে রয়েছেন পরমব্রত ও অঙ্কুশ। বিচারকের ভূমিকায় রয়েছেন অনির্বাণ। পরমব্রত সওয়াল করছেন মানুষের হয়ে,এই প্রকৃতিরচালকশক্তি মানুষ দাবি পরমের। অন্যদিকে অঙ্কুশের দাবি ‘…আপনারা ধরেই নিয়েছেন ব্রহ্মাণ্ডের কেন্দ্রে আছে মানুষ আর তার জন্যই পৃথিবী সৃষ্টি হয়েছে,এটা বাড়াবাড়ি হয়ে গেল না?’

কোন দিকে মোড় নেবে এই জন্ডিস কেস, তা জানতে অপেক্ষা ১৫ মে পর্যন্ত। আপতত নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে দেখে নিন কেস জন্ডিসের ট্রেলার-

বন্ধ করুন