বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > এখনই টলিপাড়ায় শ্যুটিং শুরু না করার পক্ষে ‘রাণী রাসমণি’র রামকৃষ্ণ সৌরভ সাহা!
লকডাউনের সপক্ষেই রাহুল সাহা।
লকডাউনের সপক্ষেই রাহুল সাহা।

এখনই টলিপাড়ায় শ্যুটিং শুরু না করার পক্ষে ‘রাণী রাসমণি’র রামকৃষ্ণ সৌরভ সাহা!

  • কী জানালেন সৌরভ? কেন তিনি চান না এখনই শুরু হোক শ্যুটিং?

টলিপাড়ার শ্যুটিং বন্ধ থাকা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রচুর জলঘোলা হয়েছে। টেকনিশিয়ান, মেকআপ আর্টিস্ট, জুনিয়ার আর্টিস্ট যারা প্রতিদিনের চুক্তিতে রোজগার করেন, অন্তত তাঁদের কথা ভেবে শ্যুটিং শুরুর আবেদন জানিয়েছেন অনেক শিল্পীই। তবে, কিছুটা অন্য সুর শোনা গেল দর্শকদের প্রিয় গদাধরের মুখে। সংবাদমাধ্যমকে সৌরভ সাহা জানালেন, এখন কাজ শুরু না হওয়াই ভালো। যদিও পরিষ্কার করে দিলেন, এটা তাঁর ব্যক্তিগত মত।

কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল রানি মা-র মৃত্যুর পর বন্ধ হয়ে যাবে ‘রাণী রাসমণি’। পরে পরিচালক রাজেন্দ্র প্রসাদ দাস জানিয়েছেন, ‘এই মুহূর্তে মোটেও শেষ হচ্ছে না ধারাবাহিকটি। 'রানি মা' না থাকলেও তাঁর উত্তরকালের নানা ঘটনা দেখানো হবে। বিশেষ করে গদাধরের রামকৃষ্ণ পরমহংস হয়ে ওঠার গল্প ঘটনা দেখানো হবে এবার 'রাণী রাসমণি'-তে। সঙ্গে গদাই ঠাকুরের বিয়ের পর্ব দেখানো হয়েছে, তাই তাঁর পরবর্তী জীবনের কাহিনিও থাকবে।’

লকডাউনের কারণে আপাতত শুটিং বন্ধ। কবে ফের শুটিং শুরু হবে, সে নিয়েও তাঁর কাছে এখনও কোনও খবর নেই বলেই জানালেন সৌরভ। যদিও তিনি লকডাউনের সপক্ষে। তাঁর মতে, সবার স্বাস্থ্যের জন্য এটা এখন দরকার। জানালেন, তাঁর বাবা এগজিসটিং কাউন্সিলর (খড়দহ পুরসভার অন্যতম প্রবীণ কাউন্সিলার)। তাই পারিবারিক সূত্রে সাধারণ মানুষের সঙ্গে অনেক বেশি মেশেন। জানেন বর্তমানে পরিস্থিতি কতটা ভয়াবহ। সৌরভ বলেন, ‘এখনও তেমন পরিস্থিতি নয়, যেখানে মাস্ক খুলে অভিনয় করতে পারব আমরা। তাই এখনই কাজ শুরু না হওয়া সকলের স্বাস্থ্যের জন্যই ভালো। অন্তত ভবিষ্যতে সকলে মিলে ভালোভাবে কাজ করা যাবে।’

বন্ধ করুন