বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Kangana Ranau on Justin Trudeau: ‘একে বলে কর্মফল’: কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে একহাত নিলেন কঙ্গনা
কঙ্গনা রানাওয়াত ও জাস্টিন ট্রুডো। (ফাইল ছবি)

Kangana Ranau on Justin Trudeau: ‘একে বলে কর্মফল’: কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে একহাত নিলেন কঙ্গনা

  • সম্প্রতি কানাডায় লরিচালকরা ব্যাপক পরিমাণে আন্দোলনের রাস্তায় নেমেছেন। সেই প্রসঙ্গেই কঙ্গনা রানাওয়াতের উক্ত। 

কানাডায় লরিচালকরা আন্দোলনে নেমেছেন। তাঁদের অধিকার রক্ষা এবং অর্থনৈতিক দুরবস্থার প্রশ্ন নিয়ে গত কয়েক দিন ধরেই উত্তাল কানাডার রাজনৈতিক পরিস্থিতি। প্রশ্ন উঠেছে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর নিরাপত্তা নিয়েও। আর এই প্রসঙ্গেই মুখ খুললেন কঙ্গনা। বললেন, ‘একেই বলে কর্মফল’।

কেন এমন বলেছেন কঙ্গনা?

এর সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে ভারতে কৃষকদের আন্দোলনের। ২০২০ সালে যখন ভারতে কৃষকরা আন্দোলনে নামেন, তখন তাঁদের সমর্থন করেছিলেন ট্রুডো। লিখেছিলেন, ‘পরিস্থিতি ঘোরতর। ভারতে আমাদের কাছের মানুষ, বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে আমরা সকলেই চিন্তিত। সকলকে মনে করিয়ে দিই, কানাডা সব সময়ই শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ এবং আন্দোলনকারীদের পক্ষে। আমরা কথা বলে সমাধানের পক্ষে। ভারতীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। আমাদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছি।’

সরাসরি না বললেও, তিনি যে আসলে কৃষক আন্দোলনের সমব্যথী সে কথা বুঝিয়ে দিয়েছিলেন ট্রুডো। আর সেই প্রসঙ্গেই এবার আক্রমণ কঙ্গনার।

নেটমাধ্যমে কঙ্গনার পোস্ট। 
নেটমাধ্যমে কঙ্গনার পোস্ট। 

নেটমাধ্যমে কঙ্গনা লিখেছেন, ‘কানাডার প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো ভারতে আন্দোলনকারীদের সাহস জোগাচ্ছিলেন। এখন নিজের দেশে প্রতিবাদের সময়ে তিনি নিজে গাঢাকা দিয়েছেন। কর্মফল একেই বলে।’

ইতিমধ্যেই নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে কানাডার বিভিন্ন ভিডিয়ো। সেখানে দেখা যাচ্ছে, আন্দোলনকারীদের বিরাট কনভয় চলছে কানাডা জুড়ে। রাস্তার দু’পাশে সাধারণ মানুষ দাঁড়িয়ে হাততালি দিয়ে তাঁদের সমর্থন করছেন। শুধু তাই নয়, রাস্তার দু’পাশ থেকে তাঁদের জন্য বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে খাবার, পানীয় এবং জ্বালানি কেনার টাকা। 

অনেকেরই দাবি, এই ঘটনা জাস্টিন ট্রুডোকে রীতিমতো সমস্যায় ফেলবে। এবং এতে না তাঁর গদি টলমল হয়ে যায়।

বন্ধ করুন