বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘‌অচ্ছে দিন’‌ সোনার পাথর বাটি? বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় 'ছাপিয়ে গেল'ভারতকে
‘‌অচ্ছে দিন’‌ সোনার পাথর বাটি, ভারতকে ছাপিয়ে গেল বাংলাদেশের মাথাপিছু আয়। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
‘‌অচ্ছে দিন’‌ সোনার পাথর বাটি, ভারতকে ছাপিয়ে গেল বাংলাদেশের মাথাপিছু আয়। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

‘‌অচ্ছে দিন’‌ সোনার পাথর বাটি? বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় 'ছাপিয়ে গেল'ভারতকে

প্রশ্নের মুখে মোদী সরকার।

ভারতে ছাপিয়ে গেল বাংলাদেশের মাথাপিছু গড় আয়। প্রকাশ্যে চলে এল দেশের অর্থনীতির রুগ্ন চেহারা। বাংলাদেশের গড় মাথাপিছু পরিসংখ্যান প্রকাশের পর দাবি বিশেষজ্ঞদের। বাংলাদেশের জাতীয় পরিকল্পনা বিষয়ক মন্ত্রী যে দাবি করেছেন, তাতে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ভারতের চেয়ে বেশি। বাংলাদেশের মন্ত্রীর এই দাবি ঘিরে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়েছে দেশের রাজনৈতিক মহলে। দেশের বেহাল অর্থনীতি নিয়ে মোদী সরকারকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিরোধীরা। তাঁদের প্রশ্ন, পড়শি দেশের মাথাপিছু আয় যেখানে বেড়েছে, সেখানে কোথায় গেল মোদী সরকারের ‘‌অচ্ছে দিন’‌-‌এর প্রতিশ্রুতি?‌ সেক্ষেত্রে ‘‌অচ্ছে ‌দিন’‌ এখন সোনার পাথর বাটি হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মত বিরোধীদের।

বাংলাদেশের পরিকল্পনা মন্ত্রকের মন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, ‘‌ চলতি বছরে দেশের জনসংখ্যার মাথাপিছু আয় বেড়ে ২,২২৭ মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্য বছরে ১,৮৮,৮৭৩ টাকা।

উল্লেখ্য, গত বছর বাংলাদেশের জনসংখ্যার মাথাপিছু আয় ছিল ২,০৬৪ মার্কিন ডলার। সেই তুলনায় এবছর মাথাপিছু আয় ১৬৩ ডলার বেড়েছে। শতাংশের হিসেবে যা গত বছরের চেয়ে ৯ শতাংশ বেশি। এর বিপরীতে এখন ভারতীয়দের মাথা পিছু আয় ১,৯৪৭ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ বাংলাদেশের তুলনায় ২৮০ মার্কিন ডলার কম। স্বাভাবিকভাবে এই তথ্য সামনে আসতেই মোদী সরকারের দিকে আঙুল উঠতে শুরু করেছে। তবে এ নিয়ে কেন্দ্রের তরফে এখনও কোনও বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি।

বন্ধ করুন