বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মৃত মহিলা চিকিৎসককে বদলি করা হল অন্য হাসপাতালে, পদোন্নতিও হয়েছে
বিহার স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশকে ঘিরে শোরগোল বিভিন্ন মহলে প্রতীকী ছবি (‌সৌজন্য গেটি ইমেজেস)‌ (HT_PRINT)
বিহার স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশকে ঘিরে শোরগোল বিভিন্ন মহলে প্রতীকী ছবি (‌সৌজন্য গেটি ইমেজেস)‌ (HT_PRINT)

মৃত মহিলা চিকিৎসককে বদলি করা হল অন্য হাসপাতালে, পদোন্নতিও হয়েছে

  • বিহারের স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সাফাই, পদোন্নতির ইন্টারভিউয়ের সময় তিনি জীবিত ছিলেন। তবে মাঝের সময় তিনি যে প্রয়াত হয়েছিলেন এটা ডিপার্টমেন্ট ঠিক জানত না।

১১ মাস আগে প্রয়াত মহিলা চিকিৎসকের নাম উঠেছে বদলির তালিকায়। বিহার স্বাস্থ্য দফতরের এই তালিকা ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। আর গোটা ঘটনায় বেজায় অস্বস্তিতে পড়েছে স্বাস্থ্য দফতর। সূত্রের খবর গত ১২ই অগস্ট ওই পোস্টিং অর্ডার প্রকাশিত হয়েছিল। তবে এবারই প্রথম নয়। এর আগেও ৫ মাস আগেও কার্যত সেই একই ভুল করেছিল স্বাস্থ্য দফতর। গত ৮ই মার্চ বিহার স্বাস্থ্য দফতর ডঃ রাম নারায়ণ রাম নামে একজন চিকিৎসকের পদোন্নতি ও পোস্টিংয়ের অর্ডার বের করেছিল। তবে তাৎপর্যপূর্ণভাবে গত ৭ই ফেব্রুয়ারি তিনি মারা গিয়েছিলেন। তারপর তাঁর নাম কীভাবে ওই তালিকায় ছিল তা নিয়ে প্রশ্নটা থেকেই গিয়েছে।

এদিকে দ্বারভাঙা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে যোগ দেওয়ার কথা ছিল ওই মহিলা চিকিৎসক Dr.Shiwangeeর। এদিকে ওই মেডিক্যাল কলেজের একজন অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর জানিয়েছেন, পটনার নালন্দা মেডিক্যাল কলেজে পোস্টিং থাকাকালীন ওই মহিলা চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। তবে তিনি দ্বারভাঙাতে যোগ দেননি। এদিকে সরকারি নির্দেশ মোতাবেক ৪০৬জন চিকিৎসককে নির্দিষ্ট হাসপাতালে এক সপ্তাহের মধ্যে যোগ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। সেখানে ওই মহিলা চিকিৎসকের নামও ছিল। 

দ্বারভাঙা মেডিকেল কলেজের সুপার ডঃ মণিভূষণ শর্মা বলেন, ‘ব্যাপারটা ডিপার্টমেন্টকে জিজ্ঞাসা করুন। আমরা জানতে পেরেছি যিনি ১১ মাস আগে মারা গিয়েছেন তাঁকে এখানে পোস্টিং করা হয়েছে। যিনি আবেদনই করেননি তাঁকে কীভাবে পোস্টিং করা হল সেটাই বোঝা যাচ্ছে না। হয়তো কিছু ভুল হয়ে গিয়েছে।’ তবে স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সাফাই, ‘পদোন্নতির ইন্টারভিউয়ের সময় তিনি জীবিত ছিলেন। তবে মাঝের সময় তিনি যে প্রয়াত হয়েছিলেন এটা ডিপার্টমেন্ট ঠিক জানত না। সেকারণে এই অর্ডারটা ইস্যু হয়েছিল।’

 

বন্ধ করুন