বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সত্যিই কি যুবক-যুবতীকে গুলি করেছেন পুলিশকর্মী? জানুন ভাইরাল ভিডিয়োর রহস্য
ছবি : টুইটারে ভিডিয়োটির স্ক্রিনগ্র্যাব (Twitter)
ছবি : টুইটারে ভিডিয়োটির স্ক্রিনগ্র্যাব (Twitter)

সত্যিই কি যুবক-যুবতীকে গুলি করেছেন পুলিশকর্মী? জানুন ভাইরাল ভিডিয়োর রহস্য

সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন কাহিনীর সঙ্গে জুড়ে ভাইরাল করা হচ্ছে এই ভিডিয়ো। কিন্তু এর আসল সত্যিটা জানেন?

ফেসবুক ও টুইটারে সম্প্রতি একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে কোনও শপিং মলের সামনে যুবক-যুবতীর সঙ্গে বচসা হচ্ছে এক পুলিশকর্মীর। তারপরই তাঁদের গুলি করে হত্যা করছেন সেই পুলিশকর্মী। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন কাহিনীর সঙ্গে জুড়ে ভাইরাল করা হচ্ছে সেই ভিডিয়ো। কিন্তু এর আসল সত্যিটা জানেন?

ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে কোনও শপিং মলের সামনে যুবক-যুবতীর সঙ্গে বচসা হচ্ছে এক পুলিশকর্মীর। যুবক এগিয়ে আসতেই মেজাজ হারালেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে নিজের রিভলভার বের করে গুলি করলেন যুবককে। সঙ্গে সঙ্গে আর্তনাদ করে উঠলেন যুবতী।

রক্তাক্ত যুবকের পাশে বসে চিত্কার করছিলেন সেই যুবতী। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই যুবতীকেও গুলি করলেন ওই পুলিশকর্মী। ভয়ানক দৃশ্যের এই ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। দেখুন সেই ভিডিয়ো।

ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই উত্তরপ্রদেশের প্রশাসনের নিন্দায় সরব হয়েছেন নেটিজেনরা। পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপের দাবি করতে থাকেন অনেকে। শুরু হয় শেয়ার, কমেন্টের বন্যা।

কিন্তু এর পেছনে আসল রহস্য কী? সত্যিই কি এমনটা হয়েছে? আজ্ঞে না। আসলে এটি একটি ওয়েব সিরিজের শুটিংয়ের দৃশ্য। সেই শুটিংয়ের সময়েই কেউ ভিডিয়ো তুলে আপলোড করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপরেই তা ভাইরাল হয়ে যায়।

এ বিষয়ে ওয়াকিবহাল অনেকেই আসল সত্যিটি জানিয়েছেন। এরপরে অনেকেই এই ধরনের ওয়েব সিরিজের নিন্দা করেছেন। এই ধরনের দৃশ্যের ফলে জনমানসে পুলিশকর্মীদের সম্মন্ধে ভুল ধারণা জন্মায়, এ কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন অনেকে। তাছাড়া ভিডিয়োয় ব্যাকগ্রাউন্ড আর্টিস্ট হিসাবে শিশুশিল্পীদেরও ব্যবহার করা হয়েছে। এই ধরনের দৃশ্যের প্রভাব শিশু মনে যে খুব খারাপ হতে পারে, সে কথাও তুলে ধরেছেন অনেকে। 

তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু দেখেই সঙ্গে সঙ্গে শেয়ার করা থেকে বিরত থাকুন। এর সবচেয়ে ভাল উপায় হল সেই বিষয়টি সম্পর্কে গুগল-এ লিখে সার্চ করে নেওয়া। একাধিক সংবাদমাধ্যমের ওয়েবসাইট থেকে বিষয়টি যাচাই করুন। গুজব শেয়ার এড়িয়ে চলুন।

বন্ধ করুন