বাজারে গোল্ড বন্ড ছেড়েছে আরবিআই (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
বাজারে গোল্ড বন্ড ছেড়েছে আরবিআই (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

Gold Bond: শুরু গোল্ড বন্ড বিক্রি, অনলাইন পেমেন্টে মিলবে ছাড়

  • আট বছরের মেয়াদে তা কেনা যাচ্ছে। পাঁচ বছর পরও ভাঙানোর সুযোগ থাকবে।

বাজারে ফের গোল্ড বন্ড ছাড়ল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। আগামী ৬ মার্চ পর্যন্ত বিভিন্ন ব্যাঙ্ক, নির্দিষ্ট কিছু পোস্ট অফিসে থেকে বন্ড কেনা যাবে বলে জানিয়েছেে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক (আরবিআই)। পাশাপাশি, এজেন্টের মাধ্যমে শেয়ার বাজারও বন্ড বিক্রি করতে পারে।

সরাসরি সোনা না কিনে হলুদ ধাতুতে লগ্নির সুযোগ দেয় গোল্ড বন্ড। কাঁচা সোনার পরিবর্তে সমপরিমাণ গোল্ড বন্ড কেনা যায়। ফলে একদিকে যেমন পরে লাভবান হওয়া যায়। তেমনই বাড়িতে সোনার গয়না রাখার ঝুঁকি কমে। সুদ তো মিলবেই। পাশাপাশি সোনার দাম বাড়লে বাড়তি মুনাফাও পাওয়া যাবে।

আরবিআইয়ের তরফে জানানো হয়েছে, প্রতি গ্রাম ৪,২৬০ টাকা দরে বন্ড বিক্রি হচ্ছে। আট বছরের মেয়াদে তা কেনা যাচ্ছে। পাঁচ বছর পরও ভাঙানোর সুযোগ থাকবে। সাধারণত কমপক্ষে এক গ্রাম সোনার বন্ড কিনতে হয়। ব্যক্তিগত ক্রেতাদের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সীমা চার কেজি। ট্রাস্ট বা সমজাতীয় কোনও প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে সেই সীমা ২০ কেজি।

অনলাইনে বন্ড কিনলে বাড়তি ছাড়েরও ঘোষণা করেছে আরবিআই। ডিজিটাল পেমেন্ট করলে গ্রামপিছু ৫০ টাকা ছাড় পাবেন ক্রেতারা। বন্ডের জন্য বছরে ২.৫ শতাংশ হারে সুদ মিলবে। ছ’মাস অন্তর সুদের টাকা সরাসরি ক্রেতার অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে। সোনার দামের সঙ্গে শেষ কিস্তির সুদের টাকা একসঙ্গে দেওয়া হবে।

মেয়াদ শেষে সোনার (৯৯৯ বিশুদ্ধতার সোনার দাম) যে দর থাকবে, সেই অনুযায়ী টাকা পাওয়া যাবে। ইন্ডিয়ান বুলিয়ান অ্যান্ড জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন দৈনিক যে সোনার দর দেয়, এক্ষেত্রে মেয়াদ শেষের তিনটি কাজের দিনে হলুদ ধাতুর যে দর থাকবে, তার গড় করে টাকা দেওয়া হবে।

বন্ধ করুন