বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মাসের পয়লা দিনেই দুর্বল সোনা, রেকর্ডের থেকে কম থাকল ৯,০০০ টাকা
মাসের পয়লা দিনেই স্বস্তি দিল সোনা, রেকর্ডের থেকে কম থাকল ৯,০০০ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
মাসের পয়লা দিনেই স্বস্তি দিল সোনা, রেকর্ডের থেকে কম থাকল ৯,০০০ টাকা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

মাসের পয়লা দিনেই দুর্বল সোনা, রেকর্ডের থেকে কম থাকল ৯,০০০ টাকা

  • বিশ্ব বাজারের রেশ ধরে বৃহস্পতিবার ভারতেও দুর্বল থাকল সোনা।

বিশ্ব বাজারের রেশ ধরে বৃহস্পতিবার ভারতেও দুর্বল থাকল সোনা। জুলাইয়ের পয়লা দিনে এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম সামান্য কমে দাঁড়িয়েছে ৪৬,৯২৭ টাকা। বিশেষজ্ঞদের মতে, এমসিএক্স সূচকে ৪৫,৯৭০ টাকায় সহায়তা পাচ্ছে ১০ গ্রাম সোনা। বাধা পাচ্ছে ৪৭,৬০০ টাকায়।

গত মাসে ১০ গ্রাম সোনার দাম ২,৫০০ টাকার মতো কমেছে। আপাতত রেকর্ড দরের থেকে ৯,০০০ টাকার মতো কম আছে সোনার। গত বছর অগস্টে ১০ গ্রাম হলুদ ধাতুর দর ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। তারপর চলতি বছরের মাঝামাঝি সময় সোনার দর ৫০,০০০ টাকার কাছে চলে গেলেও এখন তা আবার কমে গিয়েছে।

বিশ্ব বাজারেও কমেছে সোনার দাম। এক আউন্স সোনার দাম ১,৭৭০ ডলারে নেমে গিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, শক্তিশালী মার্কিন ডলারের ফলে সোনার চাহিদা ধাক্কা খেয়েছে। ডলার সূচক ৯২.৪৮-তে পৌঁছে গিয়েছে। যা প্রায় তিন মাসে সর্বোচ্চ। চলতি সপ্তাহের শেষদিকে মার্কিন কর্মসংস্থান সংক্রান্ত রিপোর্টের দিকে তাকিয়ে লগ্নিকারীরা কিছুটা সতর্কভাবে পা ফেলেছেন। আগামিকাল (শুক্রবার) প্রকাশিত হতে চলা মার্কিন কর্মসংস্থান সংক্রান্ত সেই রিপোর্টের মাধ্যমে অর্থনৈতিক অগ্রগতির বিষয়টি নির্ণয় করব। সেই রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ফেডারেল রিজার্ভ পরবর্তী আর্থিক প্যাকেজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

জিয়োজিতের তরফে জানানো হয়েছে, সোনার নেতিবাচক চলতে থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে। এক আউন্সের দাম সরাসরি ১,৭৪৫ ডলারের নীচে নেমে গেলে আরও ধাক্কা খাবে হলুদ ধাতু। তবে অপ্রত্যাশিতভাবে দাম ১,৭৯৫ ডলারের গণ্ডি ছাড়িয়ে গেলে নেতিবাচক মনোভাব দূর হতে পারে। বাড়তে পারে সোনার দাম। অন্যদিকে, বিশ্ব বাজারে এক রুপোর দাম ০.১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬.১৪ ডলার। আপাতত রুপোর দাম নিম্নমুখী থাকবে। আর ২৬.৪ থেকে ২৫.২ ডলারের স্তরে ঘোরাফেরা করবে।

বন্ধ করুন