বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > টিকা আমদানি করবে না কেন্দ্র! অনুমতি দেওয়া হতে পারে রাজ্য ও কর্পোরেটগুলিকে
ফাইল ছবি : রয়টার্স
ফাইল ছবি : রয়টার্স

টিকা আমদানি করবে না কেন্দ্র! অনুমতি দেওয়া হতে পারে রাজ্য ও কর্পোরেটগুলিকে

  • কেন্দ্রীয় সরকার নিজে টিকা আমদানির দায়িত্ব হয়ত নেবে না।

দেশের করোনা গ্রাফ খুব তাড়াতাড়ি লাগাহীন পর্যায়ে চলে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে দেশের টিকাকরণ আরও দ্রুত চালিয়ে নিয়ে যেতে টিকা আমদানি করার চিন্তা ভাবনা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই আবহে জানা যাচ্ছে, সরাসরি নিজেদের ঘাড়ে পুরো দায়িত্ব না নিয়ে রাজ্য এবং দেশের কর্পোরেট সংস্থাগুলিকে টিকা আমদানির অনুমতি দিতে পারে কেন্দ্র। তবে কেন্দ্রীয় সরকার নিজে টিকা আমদানির দায়িত্ব হয়ত নেবে না। এর জেরে দেশে বিদেশি টিকার আসার প্রক্রিয়া কিছুটা হলেও ধাক্কা খেতে পারে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

সূত্রের খবর, কেন্দ্রের মূল ফোকাস দেশে উত্পাদিত টিকা কিনে তা জনগণকে দেওয়া। প্রসঙ্গত, এই মাসেই ভারত বায়টেক এবং সেরাম ইনস্টিটিউটকে প্রথম দফার ভ্যাকসিন সরবরাহের জন্য টাকা পাঠিয়েছে কেন্দ্র। তবে এরই মাঝে ফাইজার, জনসন অ্যান্ড জনসন ও মডার্নার মতো সংস্থা ভারতে তাদের টিকা প্রয়োগের অনুমতি চেয়ে আবেদন জানিয়েছে। এই সংস্থাগুলিকে শীঘ্রই ছাড়পত্র দিয়ে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

তবে এই সংস্থাগুলির সঙ্গে সরাসরি চুক্তি করবে না কেন্দ্র। বরং এই বিদেশি সংস্থাগুলির সঙ্গে কোনও রাজ্য সরকার বা কর্পোরেট সংস্থা চুক্তি করবে বলে আশা রাখছে কেন্দ্র। এই প্রেক্ষিতে সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে এক সরকারি আধিকারিক বলেন, 'পরিস্থিতি খুবই গুরুতর। ভারত এই ভ্যাকসিনের আমদানির অনুমতি দেবে তবে সেগুলি কেন্দ্রীয় সরকার কিনবে না।'

এখনও পর্যন্ত ১৪.১৯ কোটি ভারতীয়কে কোভিড ভ্য়াকসিন দেওয়া সম্ভব হয়েছে। আজ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে এই খবর জানানো হয়েছে। চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারি থেকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। মাত্র ১০০ দিনে ১৪ কোটিরও বেশি সংখ্যক ভারতীয়কে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার নজির গড়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর মধ্যে এ রাজ্য ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজে পঞ্চম স্থানে রয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক যে তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে জানানো হয়েছে, মোট ১৪ কোটি ১৯ লাখ ১১ হাজার ২২৩ জনকে টিকা দেওয়া সম্ভব হয়েছে মাত্র ১০০ দিনে। তার মধ্য়ে সবথেকে বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে মহারাষ্ট্রে। ওই রিপোর্টে জানানো হয়েছে, মোট যে পরিমাণ টিকা দেওয়া হয়েছে তার মধ্য়ে কেরল, মধ্যপ্রদেশ, কর্ণাটক, পশ্চিমবঙ্গ, গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ ও রাজস্থান মিলে মোট ৫৮.৭৮ শতাংশ করোনা টিকা দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১০ লাখ টিকা দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে ওই রিপোর্টে। 

 

বন্ধ করুন