বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'নিশ্চিত করেছি যাতে অতিমারীতেও উন্নয়নমূলক কাজ থমকে না থাকে', হিমাচলে বললেন মোদী
হিমাচলে মোদী (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
হিমাচলে মোদী (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

'নিশ্চিত করেছি যাতে অতিমারীতেও উন্নয়নমূলক কাজ থমকে না থাকে', হিমাচলে বললেন মোদী

  • রাজ্যের পূর্বতন কংগ্রেস সরকারকে তোপ দেগে মোদী অভিযোগ করেন যে তারা শুধু নিজেদের কথা ভেবেই কাজ করত। 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সোমবার হিমাচল প্রদেশের মান্ডি জেলায় ১১ হাজার কোটি টাকার একাধিক উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। এদিন হিমাচলে মোদী বলেন, ‘আজ হিমাচলপ্রদেশ সরকারের চার বছর পূর্ণ হল। তার মেয়াদে, সরকার কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে এবং এই সময়ে রাজ্যে উন্নয়নমূলক কাজগুলি যাতে বন্ধ না হয় তাও নিশ্চিত করেছিল।’

আগের কংগ্রেস সরকারকে তোপ দেগে মোদী অভিযোগ করেন যে তারা শুধু নিজেদের কথা ভেবেই কাজ করত। মোদী এদিন বলেন, ‘রাজ্যে দুটি উন্নয়নের মডেল রয়েছে। একটি হল 'সবকা সাথ, সবকা বিকাশ এবং সবকা বিশ্বাস'। অন্য মডেলটি হল 'খুদ কা স্বর্থ, পরিবার কা স্বর্থ' (নিজের স্বার্থ, পরিবারের স্বার্থ)। হিমাচলপ্রদেশ সরকার প্রথম মডেলে কাজ করছে এবং রাজ্যে অনেক উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে।’ 

এদিন হিমাচলে উদ্বোধন করা প্রকল্পগুলির মধ্যে রয়েছে ১১১ মেগাওয়াট সাওরা-কুড্ডু জলবিদ্যুৎ প্রকল্প।  এই প্রকল্পটি বাস্তবায়িত করতে প্রায় ২০৮০ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। এটি প্রতি বছর ৩৮০ মিলিয়ন ইউনিটের বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সমর্থ হবে। রাজ্যকে বার্ষিক ১২০ কোটিরও বেশি মূল্যের রাজস্ব আয় করতে সাহায্য করবে এই প্রকল্প। 

তাছাড়া কয়েক দশক ধরে আটকে থাকা রেণুকাজি বাঁধের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন মোদী। এই প্রকল্পের ফলে হিমাচল, উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, রাস্থান ও হরিয়ানা উপকৃত হবে। এই ৪০ মেগাওয়াট প্রকল্পটি তৈরি করতে সরকারের ৭ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে। তাছাড়া লুহরি জলবিদ্যুৎ প্রকল্পেরও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন নরেন্দ্র মোদী। এই প্রকল্পটি তৈরি করতে খরচ হবে ১৮০০ কোটি টাকা।

 

  

বন্ধ করুন