বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘লাভ জিহাদ’ রুখতে নয়া বিল আনছে মধ্যপ্রদেশ, থাকবে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের বিধান
‘লাভ জিহাদ’-র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ নয়াদিল্লিতে (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
‘লাভ জিহাদ’-র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ নয়াদিল্লিতে (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‘লাভ জিহাদ’ রুখতে নয়া বিল আনছে মধ্যপ্রদেশ, থাকবে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের বিধান

  • কেউ যদি বিয়ের জন্য নিজের ধর্ম পরিবর্তন করতে চায়, তাহলে বিয়ের একমাস আগে জেলাশাসককে সে বিষয়ে জানাতে হবে।

‘লাভ জিহাদ’-র বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে আইন প্রণয়নের বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে হরিয়ানা এবং কর্নাটক। সেই রেশ ধরে দ্রুত নয়া বিল পেশ করতে চলেছে আরও এক বিজেপি-শাসিত রাজ্য মধ্যপ্রদেশ। 

মঙ্গলবার ভোপালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র জানান, জোর করে দুই ধর্মের মধ্যে বিয়ে করলে বা ‘লাভ জিহাদ’-এর প্রচার করলে নয়া বিলে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের প্রস্তাব আছে। ধৃতদের বিরুদ্ধে জামিন-অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করা হবে। তিনি বলেন, ‘লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে শীতকালীন অধিবেশনে আমরা ২০২০ সালের মধ্যপ্রদেশ ধর্ম স্বতন্ত্র বিল পেশ করব। যার অর্থ হল অন্য ধর্মের ব্যক্তিকে বিয়ের জন্য একজন মহিলাকে বাধ্য করা বা প্রলোভন দেখানো এবং ধর্ম পরিবর্তনের জন্য পরে তাঁকে (মহিলা) অত্যচার করা।’

‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে ভারতে বিতর্ক নতুন কিছু নয়। যে শব্দবন্ধনী তৈরি করেছে বিভিন্ন কট্টর হিন্দুত্ববাদী দল। তারইমধ্যে তানিশকের বিজ্ঞাপন এবং হরিয়ানায় এক কলেজছাত্রীর খুনের ঘটনার পরই ‘লাভ জিহাদ’ বিতর্ক আরও বাড়তে থাকে। নরোত্তম বলেন, ‘যাঁরা লাভ জিহাদের প্রচার করবেন, তাঁদের সবাইকে আমরা শাস্তি দেব। জোর করে ধর্ম পরিবর্তন এবং বিয়ে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে এবং তা জামিন-অযোগ্য হবে। এই ধরনের বিয়েকে অবৈধ বলে ঘোষণা করার বিধানও থাকবে।’ 

তবে মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি, দুই ধর্মের মধ্যে বিয়েতে কোনও আপত্তি নেই বিজেপি সরকারের। নয়া বিলের মাধ্যমে শুধুমাত্র ‘লাভ জিহাদ’-র বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তবে কেউ যদি বিয়ের জন্য নিজের ধর্ম পরিবর্তন করতে চান, তাহলে বিয়ের একমাস আগে জেলাশাসককে সে বিষয়ে জানাতে হবে।

বন্ধ করুন