বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ইন্টার্নশিপের মাঝপথে ইউক্রেন থেকে দেশে ফেরা মেডিক্যাল গ্র্যাজুয়েটদের কী হবে? বড় ঘোষণা কেন্দ্রের
অপারেশন গঙ্গায় দেশে ফিরছেন মেডিক্যাল পড়ুয়ারা  (Ayush Sharma)

ইন্টার্নশিপের মাঝপথে ইউক্রেন থেকে দেশে ফেরা মেডিক্যাল গ্র্যাজুয়েটদের কী হবে? বড় ঘোষণা কেন্দ্রের

  • ভারতে চিকিৎসা শিক্ষা এবং চিকিৎসা পেশাদারদের তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে ন্যাশনাল মেডিকেল কমিশন।

ন্যাশনাল মেডিকেল কমিশন (NMC) শুক্রবার একটি সার্কুলার জারি করে জানিয়েছে যে বিদেশ থেকে কোর্সের মাঝ পথে দেশে ফেরা মেডিক্যাল স্নাতকরা অসম্পূর্ণ ইন্টার্নশিপ দেশেই শেষ করতে পারবেন। করোনা পরিস্থিতি ও যুদ্ধের মতো পরিস্থিতিতে যারা দেশে ফিরতে বাধ্য হয়েছেন, সেই সকল ডাক্তারদের জন্যই এই নিয়ম লাগু থাকবে। উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস অতিমারী বা ইউক্রেনের যুদ্ধের জেরে বহু ডাক্তারি পড়ুয়া তাদের কোর্সের মাঝেই দেশে ফিরতে বাধ্য হয়েছেন।

ভারতে চিকিৎসা শিক্ষা এবং চিকিৎসা পেশাদারদের তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে ন্যাশনাল মেডিকেল কমিশন। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বলেছে যে বিদেশী মেডিকেল স্নাতক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে রাজ্য মেডিকেল কাউন্সিলের মাধ্যমে ইন্টার্নশিপ সম্পূর্ণ করার জন্য আবেদন জানাতে পারবেন প্রার্থীরা। উল্লেখ্য, বিদেশে যাঁরা এমবিবিএস পাশ করেন, তাঁদের ভারতে চিকিৎসক হিসাবে স্বীকৃত হতে 'ফরেন মেডিক্যাল গ্র্যাজুয়েট এক্সামিনেশন' পরীক্ষা পাশ করতে হয়। আর সেই পরীক্ষা পাশ করলে তবেই ভারতে তাঁরা চিকিৎসক হিসাবে স্বীকৃতি পেতে পারেন।

চিনে পঠনরত বহু ডাক্তারি পড়ুয়াকে মাঝপথে ফিরতে হয়েছিল করোনার কারণে। এরপর অবশ্য চিনে ফিরতে পারেননি তারা। এদিকে সম্প্রতি ইউক্রেনে শুরু হওয়া যুদ্ধের জেরে প্রায় ২০ হাজার মেডিক্যাল পড়ুয়াকেও কোর্সের মাঝপথে ফিরে আসতে হচ্ছে। এই আবহে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের তরফে দাবি, ইউক্রেন থেকে ফেরা পড়ুয়াদের দেশের মেডিকেল কলেজে ভর্তির ব্যবস্থা করা হোক। চূড়ান্ত বর্ষের পড়ুয়াদের অগ্রাধিকার দেওয়ার দাবি জানিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন। উল্লেখ্য, অনেক অভিভাবকই জমি জায়গা বেচে বা ধার দেনা করে ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য ইউক্রেনে পাঠিয়েছিলেন। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের যা অবস্থা এখন আপাতত সেখানে গিয়ে পড়াশোনা সম্ভব নয়। এই অবস্থায় ছেলেমেয়েদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চয়তায় পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এই আবহে দেশে ফিরে আসা পড়ুয়ারা তাকিয়ে সরকারের দিকে।

বন্ধ করুন