বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > SBI KYC: আপডেট না করলে ৩১ মে ফ্রিজ হতে পারে অ্যাকাউন্ট, লাগবে কোন কোন নথি?
এসবিআই (ফাইল ছবি/হিন্দুস্তান টাইমস)
এসবিআই (ফাইল ছবি/হিন্দুস্তান টাইমস)

SBI KYC: আপডেট না করলে ৩১ মে ফ্রিজ হতে পারে অ্যাকাউন্ট, লাগবে কোন কোন নথি?

  • ৩১ মে-র মধ্যে যদি কেওয়াইসি আপডেট না থাকে তাহলে সেই অ্যাকাউন্টটি আংশিক ভাবে ফ্রিজ করা হবে বলে জানিয়ে দিল এসবিআই।

KYC বা নো ইউর কাস্টোমার আদতে একটি প্রক্রিয়া, যার মাধ্যমে ব্যাঙ্কগুলি গ্রাহকদের তথ্য নিয়ে তাদের পরিচয় নিশ্চিত করে। কোভিড পরিস্থিতিতে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার তরফে জানানো হয়েছে এবার ব্যাঙ্কে না গিয়েও আপনি আপনার কেওয়াইসি আপডেট করতে পারবেন। তবে ৩১ মে-র মধ্যে যদি কেওয়াইসি আপডেট না থাকে তাহলে সেই অ্যাকাউন্টটি আংশিক ভাবে ফ্রিজ করা হবে বলে জানিয়ে দিল এসবিআই।

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া সম্প্রতি তাদের ব্যাঙ্কিং অ্যাপ YONO-তে একটি ফিচার চালু করেছে যার মাধ্যমে ভিডিয়ো কলেই সংশ্লিষ্ট ব্রাঞ্চে কেওয়াইসি আপডেট করাতে পারবেন গ্রাহকরা। ফেশিয়াল রেকগনাইজেশন প্রযুক্তির মাধ্যমে পরিচালিত এই প্রক্রিয়া একেবারেই পেপারলেস। এছাড়া পোস্টের মাধ্যমেও কেওয়াইসি-র নথি পাঠাতে পারবেন গ্রাহকরা।

এদিকে কেওয়াইসি আপডেটের নামে জালিয়াতি হচ্ছে। ভুয়ো কলের থেকে গ্রাহকদের সতর্ক থাকতে বলেছে এসবিআই। এছাড়া অনলাইন লেনদেনের ক্ষেত্রেও ভুয়ো অ্যাপের ব্যবহার ঠেকাতে সতর্কতা জারি করেছে এসবিআই। অভিযোগ, 'কুইক ভিউ' নামক একটি অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছ থেকে কেওয়াইসি নথি চাওয়া হচ্ছে। এবং এই অ্যাপের মাধ্যমে স্মার্টফোন হ্যাক করে তথ্য চুরির চেষ্টা করা হচ্ছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট আইডি, পাসওয়ার্ড সহ প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য প্রতারকদের হাতে চলে যাচ্ছে।

এই আবহে এসবিআই একটি বিবৃতি দিয়ে সতর্ক করেছে গ্রাহকদের। ব্যাঙ্কের বক্তব্য, অনলাইনে টাকা লেনদেন করতে হলে এসবিআই-এর ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং অ্যাপ Yono বা BHIM ব্যবহার করতে পারেন। তবে অন্য কোনও অ্যাপ ব্যবহার করবেন না। কেওয়াইসির নামে স্মার্টফোন থেকে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করছে 'কুইক ভিউ' নামক একটি অ্যাপ। এই আবহে প্রতারকদের কল থেকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে ব্যাঙ্কের তরফে।

কেওয়াইসি তথ্য আপডেটের জন্য কী কী লাগবে?

১) ভোটার কার্ড

২) পাসপোর্ট

৩) ড্রাইভিং লাইসেন্স

৪) মনরেগা কার্ড

৫) ভারতীয় ডাকের জারি করা পরিচয়পত্র

৬) ফোনের বিল

৭) বিদ্যুতের বিল

৮) ছবি-সহ ব্যাঙ্কের পাসবই

৯) রেশন কার্ড

১০) আধার কার্ড

১১) প্যান কার্ড

১২) ক্রেডিট কার্ড স্টেটমেন্ট

১৩) ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন

১৪) জলের বিল ও সম্পত্তি ট্যাক্স পেপার।

 

বন্ধ করুন