বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Banga Bhavans: দিল্লির ২ বঙ্গ ভবনের নিরাপত্তার দায়িত্বে রাজ্য পুলিশই

Banga Bhavans: দিল্লির ২ বঙ্গ ভবনের নিরাপত্তার দায়িত্বে রাজ্য পুলিশই

২৩ জানুয়ারি থেকে দুই বঙ্গভবনের নিরাপত্তার দায়িত্ব নিল রাজ্য পুলিশ। (সংগৃহীত)

কয়েকদিন আগেই সাগরদিঘির সভা থেকে মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে এ ব্যাপারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই মতো ২৩ জানুয়ারি সকাল থেকে দায়িত্ব নিজেদের হাতে নিল রাজ্য পুলিশ।

২৩ জানুয়ারি থেকে দিল্লির দুই বঙ্গ ভবনের দায়িত্ব নিল রাজ্য পুলিশে। কয়েকদিন আগেই সাগরদিঘির সভা থেকে মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে এ ব্যাপারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতো ২৩ জানুয়ারি সকাল থেকে দায়িত্ব নিজেদের হাতে নিল রাজ্য পুলিশ।

প্রশাসনের নির্দেশ পেয়েই ২২ জানুয়ারি সকালে রাজ্য পুলিশের একটি দল রাজধানী পৌঁছয়। মোট ২০ জনের এই দলে রয়েছেন কনস্টেবল, এসআই পর্দমর্যাদার পুলিশ কর্মীরা।

পুলিশ সূত্রে খবর, পুরনো এবং নবনির্মিত বঙ্গ ভবনের নিরাপত্তার দায়িত্বে এসেছেন যে রাজ্য পুলিশ দল তাঁরা আপাতত এক মাস দায়িত্বে থাকবেন। এক মাস পর তাঁদের ফিরিয়ে এনে অন্য দলকে পাঠানো হবে। আপাতত এই নিয়মই বজায় থাকবে। পরে এর পরিবর্তন হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

কেন বঙ্গভবনের নিরাপত্তার দায়িত্বে রাজ্য পুলিশ?

ঘটনার সূত্রপাত তৃণমূল নেতা তথা সমাজকর্মী সাকেত গোখলেকে কেন্দ্র করে। কিছুদিন আগে তাঁকে দিল্লি চাণক্যপুরীর বঙ্গভবনে ঢুকে গ্রেফতার করে গুজরাত পুলিশ। কোনও অনুমতি ছাড়াই বঙ্গভবনের সিসিটিভি ক্যামেরা-সহ ফুটেজ নিয়ে যায় পুলিশ। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই ঘটনার পর বিনা অনুমতিতে বঙ্গভবনে প্রবেশ নিয়ে গুজরাট পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি অভিযোগ দায়ের করা হয় দিল্লি পুলিশের একাধিক আধিকারিকের নামেও। তারাও গুজরাট পুলিশকে সহযোগিতা করেছিল। গ্রেফতারির প্রতিবাদ জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠিও লেখে রাজ্য সরকার। তার পরই এই ব্যবস্থা। মুখ্যমন্ত্রী সাগরদিঘির সভা থেকে জানিয়ে দেন, আগামিদিনে বঙ্গভবনে প্রবেশ করে হলে ভিন রাজ্যের পুলিশকে অনুমতি নিতে হবে।

(এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup)

বন্ধ করুন