বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'পেট্রল, পাথর নিয়েই ওরা এসেছিল,' অসমে থানায় আগুন নিয়ে বিস্ফোরক Report পুলিশের
শনিবার এভাবেই অসমের থানার বিল্ডিংয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ফাইল ছবি (ANI PHOTO.) (HT_PRINT)

'পেট্রল, পাথর নিয়েই ওরা এসেছিল,' অসমে থানায় আগুন নিয়ে বিস্ফোরক Report পুলিশের

  • এসপি লীনা দোলে বলেন, ভিডিও ও ছবিতে প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে জনতা পাথর ও পেট্রল নিয়েই এসেছিল। তারা নথিপত্র সব নষ্ট করে দিয়েছে। বহু কেস ডায়েরি ও অন্য়ান্য রেকর্ড ওরা জ্বালিয়ে দিয়েছে। কিছু অস্ত্র যেগুলি ওরা নষ্ট করে দিয়েছিল তা উদ্ধার করা হয়েছে। বাজেয়াপ্ত হওয়া ৫টি বাইকেও আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল ওরা।

উৎপল পরাশর

গত শনিবার অসমের নওগাঁও জেলার একটি থানাতে উত্তেজিত জনতা আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল। এনিয়ে ব্যাপক শোরগোল পড়ে এলাকায়। তবে সোমবার পুলিশ জানিয়ে দিয়েছে, এই হামলা পুরোটাই পূর্ব পরিকল্পিত ছিল। মূলত রেকর্ড জ্বালিয়ে দেওয়ার জন্যই এসব করা হয়েছিল।

শনিবার অন্তত ৪০জন বাসিন্দা থানার একটি পুরানো বিল্ডিংয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।পুলিশ কাস্টডিতে মাছ ব্যবসায়ী সফিকুল ইসলামকে মেরে ফেলা হয়েছে এই অভিযোগ তুলেই থানার বিল্ডিংয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এদিকে তারপরই সোমবার সকালে পুলিশ অন্তত ৫টি বাড়িতে অভিযান চালায়। অবৈধভাবে সেগুলি তৈরি হয়েছে এই অভিযোগ তুলে মৃত সফিকুল সহ একাধিক বাড়িতে ভাঙচুর করা হয়েছে বলেও অভিযোগ।

এদিকে থানায় হামলার তদন্তে সিট গঠন করা হয়। সফিকুলের অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়েও তদন্ত চলছে। তবে সফিকুলের পরিবারের দাবি, থানায় অত্যাচার করে মেরে ফেলা হয়েছে সফিকুলকে। অন্যদিকে পুলিশের দাবি, মদ্যপ অবস্থায় ধরা পড়েছিল ওই যুবক। পরেরদিন তাকে ছেড়েও দেওয়া হয়। এরপর তার স্ত্রী তাকে কিছু খেতে দিয়েছিলেন। তারপরই সে অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

নগাঁওর এসপি লীনা দোলে বলেন, ভিডিও ও ছবিতে প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে জনতা পাথর ও পেট্রল নিয়েই এসেছিল। তারা নথিপত্র সব নষ্ট করে দিয়েছে। বহু কেস ডায়েরি ও অন্য়ান্য রেকর্ড ওরা জ্বালিয়ে দিয়েছে। কিছু অস্ত্র যেগুলি ওরা নষ্ট করে দিয়েছিল তা উদ্ধার করা হয়েছে। বাজেয়াপ্ত হওয়া ৫টি বাইকেও আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল ওরা।

বন্ধ করুন