বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘উস্কানিমূলক...ক্ষতে নুন ঘষতে এসেছিলেন’,BJP সাংসদদের বিক্ষোভে 'বিরক্ত' শশী থারুর
শশী থারুর (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
শশী থারুর (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

‘উস্কানিমূলক...ক্ষতে নুন ঘষতে এসেছিলেন’,BJP সাংসদদের বিক্ষোভে 'বিরক্ত' শশী থারুর

  • বিরোধীদের আচরণের প্রতিবাদে পালটা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন রাজ্যসভার বিজেপি সাংসদরা। আর বিজেপি সাংসদদের এহেন কীর্তিতে বিরক্ত কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর।

ভারতীয় জনতা পার্টির সাংসদরা এদিন বিরোধীদের পাল্টা বিক্ষোভ দেখান রাজ্যসভায়। রাজ্যসভা থেকে সাংসদদের বহিষ্কার করা নিয়ে দ্বিতীয় দিন থেকেই উত্তাল সংসদ। বারংবার ওয়াকআউট, গান্ধী মূর্তির পাদদেশে অবস্থান বিক্ষোভ করতে দেখা গিয়েছে বিরোধীদের। এই আবহে আজ বিরোধীদের আচরণের প্রতিবাদে পালটা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন রাজ্যসভার বিজেপি সাংসদরা। আর বিজেপি সাংসদদের এহেন কীর্তিতে বিরক্ত কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর।

এদিন বিজেপি সাংসদদের প্রতিবাদ প্রসঙ্গে কংগ্রেস সাংসদ বলেন, ‘এখানে এসে আমাদের ক্ষতে নুন ঘষতে এসেছিলেন বিজেপি সাংসদরা। এটা উস্কানিমূলক কাজ ছিল। বিজেপির সংহতি দেখানো উচিত ছিল। আমার সহকর্মীরা অন্যায়ভাবে এমন একটি দলের দ্বারা বহিষ্কৃত হয়েছেন যেটি প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে গণতন্ত্রে ব্যাঘাত ঘটিয়েছে।’

উল্লেখ্য, প্রতিদিনই গান্ধী মূর্তির পাদদেশে বিক্ষোভে শামিল হচ্ছেন বিরোধী দলের সাংসদরা। সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিনই ১২ জন বিরোধী সাংসদকে সাসপেন্ড করায় এই প্রতিবাদ। অবিলম্বে সেই সাংসদদের সাসপেনশন তুলে নেওয়ার দাবিতে তারা অনড়৷ আবার সরকারও জানিয়ে দিয়েছে, আগে ক্ষমা চাইতে হবে বরখাস্ত হওয়া ১২ জন সাংসদকে৷ তবে ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই নেই বলে সাফ জানিয়ে দেন বিরোধীরা৷ সোম থেকে শুক্রবার প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত ধরনায় বসছেন তৃণমূলের বরখাস্ত দুই সাংসদ দোলা সেন এবং শান্তা ছেত্রী। 

 

 

বন্ধ করুন