বাংলা নিউজ > ময়দান > মার্চে পাক সফরে অস্ট্রেলিয়া, প্রভাব পড়বে IPL-এ?

দীর্ঘ অন্তরাল কাটিয়ে পাকিস্তানে অবশেষে ধীরে ধীরে ফিরেছে ক্রিকেট। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে পরপর নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড শেষ মুহূর্তে সফর বাতিল করায় ফের ঘন কালো মেঘ দেখা দিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেটে। তবে সেইসব দিকে নজর না দিয়েই পরের বছর পাকিস্তানে তিন ফর্ম্যাটের সিরিজ খেলতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া।

১৯৯৮ সালের পর এই প্রথম পাকিস্তান সফরে অজিরা তিনটি করে টেস্ট এবং ওয়ান ডে-র পাশাপাশি একটি টি-টোয়েন্টিও খেলবে। পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজা অজিদের আগমনে উচ্ছ্বসিত। তিনি জানান, ‘আমি অস্ট্রেলিয়া দলকে পাকিস্তানে স্বাগত জানাতে পেরে উচ্ছ্বসিত। ব্যক্তিগত এই সফরে তিনটি টেস্ট ম্যাচ খেলা হবে, যা আমায় সবথেকে আনন্দ প্রদান করেছে। অস্ট্রেলিয়া বিশ্বের অন্যতম সেরা দল এবং ওদের আমাদের ঘরের মাঠে ২৪ বছর পর খেলতে দেখা আমাদের দর্শকদের জন্য ভীষণই আনন্দদায়ক হতে চলেছে।’

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার তরফে কয়েকজন সফরের আগে পাকিস্তানে এসে পিসিবি আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ করার পাশপাশি সরকারের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে করোনাবিধি, থাকা, খাওয়া, নিরাপত্তা ইত্যাদি খতিয়ে দেখবে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া সভাপতি নিক হকলে AAP-কে জানান, ‘আমরা পরবর্তী তিন মাসে এই বিষয়ে কাজ করব এবং পরিদর্শনকারী দলও পাকিস্তানে পাঠাব। সকল এজেন্সিগুলোর সঙ্গে কথাবার্তা বলে নিরাপত্তার বিষয় খতিয়ে দেখব আমরা। যে কোনো সফরের মতোই এক্ষেত্রেও সব ঠিকঠাক থাকলে তবেই সফর হবে। তবে আমাদের তরফ থেকে আমরা পাকিস্তানে খেলতে খুবই আগ্রহী।’

৩ মার্চ থেকে শুরু হতে চলা টেস্ট সিরিজে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে খেলা হবে। অপরদিকে, ওয়ান ডে সিরিজ পুরুষদের বিশ্বকাপের সুপার লিগের অংশ হবে যেখানে ১৩টি দলের মধ্যে প্রথম সাতটি দল আয়োজক ভারতের সঙ্গে সরাসরি কোয়ালিফাই করবে। তিনটি টেস্ট করাচি, রাওয়ালপিন্ডি এবং লাহোরে খেলা হবে। সীমিত ওভারের সিরিজের গোটাটাই হবে লাহোরে। এবারের আইপিএলে দলের সংখ্যা বেড়েছে। সূচি জানাতে এখনও কিছু সময় বাকি থাকলেও তা মার্চেই অন্যান্যবারের তুলনায় আগে থেকে শুরু হওয়ারই সম্ভাবনা। এমন অবস্থায় অজি ক্রিকেটারদের আইপিএলে অংশ নেওয়ার বিষয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়। 

বন্ধ করুন