বাংলা নিউজ > ময়দান > CK Nayudu Trophy: দুর্ভাগ্যজনক রান-আউট, ফাইনালে নিশ্চিত শতরান হাতছাড়া করলেন ওয়াসিম জাফরের ভাইপো
আরমান জাফর। ছবি- টুইটার।

CK Nayudu Trophy: দুর্ভাগ্যজনক রান-আউট, ফাইনালে নিশ্চিত শতরান হাতছাড়া করলেন ওয়াসিম জাফরের ভাইপো

  • বিদর্ভের বিরুদ্ধে সিকে নাইডু ট্রফির ফাইনালে ব্যক্তিগত শতরানের দোরগোড়া থেকে সাজঘরে ফিরতে হয় আরমান জাফরকে। যদিও মুম্বই বড় রানের ইনিংসের দিকে এগিয়ে চলেছে।

মাত্র ১৩ বছর বয়সে স্কুল ক্রিকেটে ৪৯৮ রানের ইনিংস খেলে রেকর্ড গড়েছিলেন আরমান জাফর। অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় দলের হয়েও নজর কাড়েন পরে। কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছিলেন একদা, যদিও আইপিএলে মাঠে নামা হয়নি তাঁর। টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন তারকা ওয়াসিম জাফরের ভাইপো এবার নিশ্চিত সেঞ্চুরি হাতছাড়া করলেন সিকে নাইডু ট্রফির ফাইনালে।

আরও পড়ুন:- CK Nayudu-তে আগুনে বোলিং, বলে বলে ৫ উইকেট নিচ্ছেন শামস মুলানি, ফাইনালে মুম্বই

আমদাবাদের নরেন্দ্রে মোদী স্টেডিয়াম গ্রাউন্ড-এ'তে অনূর্ধ্ব-২৫ সিকে নাইডু ট্রফির খেতাবি ম্যাচে বিদর্ভের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামে মুম্বই। টস জিতে শুরুতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় মুম্বই। তারা দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চের বিরতিতে তাদের প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ৩৪০ রান তোলে। অল্পের জন্য শতরান হাতছাড়া করেন আরমান। তিনি ব্যক্তিগত ৮৫ রানের মাথায় দুর্ভাগ্যজনক রান-আউট হয়ে বসেন। ১৭৪ বলের লড়াকু ইনিংসে আরমান ৮টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন।

আরও পড়ুন:- CK Nayudu 22: পার্কার, মুলানির ১৯৪ রানের অবিচ্ছেদ্য জুটিতে কর্ণাটককে হারাল মুম্বই

এছাড়া ওপেনার ভূপেন লালওয়ানি ৮৮ রান করেন। ২০০ বলের ইনিংসে তিনি ১০টি চার ও ১টি ছক্কা হাঁকান। দিব্যাংশ করেন ৭ রান। হার্দিক তামোরে ২২ ও মুলানি ২১ রান করে আউট হন।

ইতিমধ্যেই হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন সুদেব পার্কার। তিনি ৬২ রানে অপরাজিত ছিলেন। যাদব ৪৩ রানে নট-আউট ছিলেন।

বন্ধ করুন