বাংলা নিউজ > ময়দান > ধোনির নতুন প্রেম জায়গা করেছে তাঁদের শোয়ার ঘরে, তবু সবটা মেনে নিতে বাধ্য হয়েছেন সাক্ষী
মহেন্দ্র সিং ধোনি ও সাক্ষী ধোনি (ছবি:ইনস্টাগ্রাম)
মহেন্দ্র সিং ধোনি ও সাক্ষী ধোনি (ছবি:ইনস্টাগ্রাম)

ধোনির নতুন প্রেম জায়গা করেছে তাঁদের শোয়ার ঘরে, তবু সবটা মেনে নিতে বাধ্য হয়েছেন সাক্ষী

  • ১১তম বিবাহ বার্ষিকীতে নিজের চিন্তার কারণ জানালেন সাক্ষী।

বিযের পরে মহেন্দ্র সিং ধোনি ও সাক্ষী ধোনির মধ্যে কেটে গেছে অনেকটা বছর। একটা সময় ভারতীয় দলের অধিনায়ক থাকাকালীন স্ত্রীকে বেশি সময় দিতে পারতেন না মাহি। দলের সঙ্গে বেশির ভাগে সময় থাকতে হত মাহিকে। কিন্তু এখন অবসর নেওয়ার পরে সাংসারিক জীবন কাটাচ্ছেন মাহি। নিয়ম বলছে ধোনির সংসার এখন সুখের হওয়ার কথা। তবে এখন সাক্ষীর সুখের সংসারে নতুন অতিথির প্রবেশ হয়েছে। শুধু কী সংসারে! একেবারে শোয়ার ঘরে জায়গা করে নিয়েছে। যেই কারণে ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ককে নিয়ে বেশ চিন্তিতো মাহির স্ত্রী।  

১১তম বিবাহ বার্ষিকীর দিনে নিজের চিন্তার কারণ জানিয়েছেন ধোনির স্ত্রী সাক্ষী। চেন্নাই সুপার কিংসের করা ভিডিয়োতে মাহি পত্নী ধোনির সঙ্গে প্রথম দেখা হওয়া, পরিচয়, প্রেম নিয়েও অনেক কথাই বলেছেন সাক্ষী। তিনি বলেন, ‘ধোনিই আমাকে গোটা বিশ্ব দেখিয়েছে। আমি আজ যতটুকু যা শিখেছি, সবটাই ওর জন্য।’ সেই ভিডিওতেই নিজের চিন্তার কারণ বলে ফেলেন সাক্ষী।

মোবাইল গেম খেলতে ব্যস্ত মহেন্দ্র সিং ধোনি (ছবি:এইচটি কোলাজ)
মোবাইল গেম খেলতে ব্যস্ত মহেন্দ্র সিং ধোনি (ছবি:এইচটি কোলাজ)

সাক্ষীর মতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়ার পর পাবজি আর কল অফ ডিউটিতে মজে রয়েছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। অবস্থা এমনই যে, ঘুমের সময়ও এই সমস্ত ভিডিয়ো গেমের চিন্তায় মগ্ন থাকেন ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক। মাহির নতুন এই প্রেমের কথা কিছুটা মেনে নিয়েছেন সাক্ষী, কারণ একটা সময় এই সমস্ত ভিডিয়ো গেম একেবারেই পছন্দ করতেন না তিনি। আর এখন শোওয়ার ঘরেও পাবজি ঢুকে পড়েছে। প্রথম দিকে মানতে না পারলেও ধীরে ধীরে এটা মেনে নিয়েছেন সাক্ষী। তিনি বলেন, ‘ধোনি সব সময় নতুন কিছু করতে পছন্দ করে। তাই হয়ত ও এই সমস্ত গেম ওর প্রিয়।’

মাহির নতুন এই প্রেমের কথা বলতে গিয়ে মাহি পত্নী বলেন, ‘ও সব সময়ই কিছু না কিছু নিয়ে চিন্তা করে। আজকাল ও খুব পাবজি আর কল অফ ডিউটি খেলছে। ঘুমের সময়ও এই নিয়ে খেলার সাথীদের সঙ্গে কথা বলতে থাকে। আমি প্রথমে ভেবেছিলাম আমার সঙ্গেই কথা বলছে বোধ হয়। পরে আসল ব্যাপারটা বুঝতে পারি।’

বন্ধ করুন