বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > ছত্তিশগড়কে ২-০ গোলে হারাল বাংলা, জোড়া গোল করে ম্যাচের নায়ক নরহরি শ্রেষ্ঠা

ছত্তিশগড়কে ২-০ গোলে হারাল বাংলা, জোড়া গোল করে ম্যাচের নায়ক নরহরি শ্রেষ্ঠা

ছত্তিশগড়কে ২-০ গোলে হারাল বাংলা (ছবি:আইএফএ)

এই ম্যাচেও প্রথম থেকেই আধিপত্য বজায় রেখেছিল বাংলা। এদিন বাংলা ২-০ গোলে হারাল ছত্তিশগড়কে। বাংলার হয়ে জোড়া গোল করে ম্যাচের নায়ক হলেন নরহরি শ্রেষ্ঠা। এই মুহূর্তে ১২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ-ফোর'এর শীর্ষে রয়েছে বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্যের ছেলেরা। লিগ পর্বে এখনও পর্যন্ত একটি ম্যাচও হারেনি তারা।

চলতি সন্তোষ ট্রফিতে বাংলা যেন অশ্বমেধের ঘোড়া। সর্বাধিক ৩২বারের চ্যাম্পিয়ন বঙ্গব্রিগেডের জয়রথ যেন কেউ থামাতেই পারছে না। বাংলা এখন অপরাজেয় হিসাবেই চলতি সন্তোষ ট্রফিতে এগিয়ে চলেছে। চার ম্যাচে তারা এখনও চারটি ম্যাচেই জিতেছে। শুক্রবার কোলহাপুরের ছত্রপতি শাহু স্টেডিয়ামে ছত্তিশগড়কে হারাল বাংলা। এই ম্যাচেও প্রথম থেকেই আধিপত্য বজায় রেখেছিল বাংলা। এদিন বাংলা ২-০ গোলে হারাল ছত্তিশগড়কে। বাংলার হয়ে জোড়া গোল করে ম্যাচের নায়ক হলেন নরহরি শ্রেষ্ঠা। এই মুহূর্তে ১২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ-ফোর'এর শীর্ষে রয়েছে বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্যের ছেলেরা। লিগ পর্বে এখনও পর্যন্ত একটি ম্যাচও হারেনি তারা।

আরও পড়ুন… সৌদি আরবে মেসি-রোনাল্ডোর দ্বৈরথ ঘিরে উন্মাদনা তুঙ্গে, টিকিটের দাম উঠল ২৬ কোটি

এদিনের ম্যাচে প্রথম থেকেই বল পজিশনে এগিয়ে ছিল বাংলা। বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্যের ছেলেরা বারবার আক্রমণেও উঠে যাচ্ছিল। কিন্তু কিছুতেই গোলটা হচ্ছিল না। প্রথমার্ধেই গোলশূন‍্য থাকায়, দ্বিতীয়ার্ধে নরহরিকে মাঠে নামান দলের কোচ বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য। কোচের সিদ্ধান্ত যে ভুল ছিল না সেটাই প্রমাণ করলেন নরহরি। কোচকে ঠিক প্রমাণ করে ম‍্যাচের ৫৭ মিনিটে দীপকের পাস থেকে নরহরি গোল করে বাংলাকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন। ৬৮ মিনিটে ফের দীপকের পাস থেকে গোল করেন বাংলার অধিনায়ক। এদিকে চার ম্যাচে রবি হাঁসদার গোল সংখ‍্যা হল ৫টি। এদিকে এদিনের জোড়া গোলের ফলে নরহরির গোল সংখ‍্যা হল ৬টি।

আরও পড়ুন… ঘরের মাঠে এগিয়ে গিয়েও আবার হারল ইস্টবেঙ্গল, ঋত্বিকের গোলে জিতল জামশেদপুর

এদিন দ্বিতীয়ার্ধেই দুটো গোল করেন নরহরি। ম্যাচের পরে বাংলা দলের কোচ বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বলেন, ‘নরহরির পায়ে লেগেছিল আগেই। সেই কারণে ওকে শুরুতে নামানো হয়নি। নরহরিকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চাইনি। দ্বিতীয়ার্ধে নামানো হয় নরহরিকে। আর দুটো গোলই করেছে নরহরি। ম্যাচের সেরাও হয়েছে ও। বলতে গেলে নরহরি নামার পরই ম্যাচের রং বদলে যায়। ম্যাচের ভাগ্যও বদলে দেন নরহরি একাই।’ তবে শুধু নরহরি নন, চলতি প্রতিযোগিতায় বাংলার এমন সাফল্যের জন্য লেফট উইংয়ের ফুটবলার দীপক রজকের দরাজ সার্টিফিকেট দিলেন তিন প্রধানে কোচিং করানো বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য। বাংলা দলের কোচ আরও বলেন, ‘চলতি প্রতিযোগিতায় আমরা এখনও পর্যন্ত ১৫টি গোল করেছি। তবে এরমধ্যে ১৩টি গোলে দীপকের অবদান রয়েছে। বাঁদিক থেকে কাট করে ঢুকে ও পাশ বাড়ায়। আর সেখান থেকেই আমাদের স্ট্রাইকাররা একের পর এক গোল করে যাচ্ছে।’

হরিয়ানাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সন্তোষ ট্রফিতে বাংলা নিজেদের অভিযান শুরু করেছিল। দ্বিতীয় ম্যাচে দমন ও দাদরাকে পাঁচ গোলে মাটি ধরিয়েছিল বাংলা। টুর্নামেন্টে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে মধ্যপ্রদেশকে পাঁচ গোলের মালা পরিয়েছিল বাংলা। এদিন ছত্তিশগড়ের বিরুদ্ধে দু’টি গোল করে বাংলা সেই জয়ের ধারা ধরে রাখল। ১৫ জানুয়ারি বাংলার পরবর্তী প্রতিপক্ষ মহারাষ্ট্র। ম্যাচটি হবে দুপুর সাড়ে তিনটেতে।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন