বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > পাঁচে ৫-ইতিহাসে মেসি, পেলেকে টপকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার নজিরও দখল করলেন
লিওনেল মেসি।

পাঁচে ৫-ইতিহাসে মেসি, পেলেকে টপকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার নজিরও দখল করলেন

  • এর আগেও পিএসজি তারকা পেশাদার কেরিয়ারে আরও একবার একই ম্যাচে ৫ গোলের নজির গড়েছিলেন। ২০১২ সালের সেই ম্যাচে বার্সেলোনার জার্সিতে বায়ার্ন লেভারকুসেনের বিপক্ষে ৫ গোল করেছিলেন তিনি। সেই ম্যাচটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল ছিল। সেটি ছিল তাঁর প্রথম ৫ গোল।

পেশাদারিত্ব, ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা, ১১০ নম্বর দলের বিরুদ্ধেও নিজেকে প্রমাণ করার তাগিদ, তাঁর খিদে- সকলের থেকে আলাদা করে দেয় লিওনেল মেসিকে। না হলে এস্তোনিয়ার মতো ১১০ নম্বর দলের বিরুদ্ধেও তিনি মাঠে নামেন! বাকি সিনিয়র প্লেয়াররা যখন বিশ্রামে, তখন মেসি সেই আগের অ্যাড্রিনালিন ঝরিয়ে মাঠে নেমে একেবারে ফুল ফোটালেন। একটা-আধটা নয়, একেবারে পাঁচে পাঁচ করে নয়া নজিরও গড়ে ফেললেন আর্জেন্তিনার তারকা।

আর্জেন্তিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি প্রথম ফুটবলার, যিনি ইউরোপিয়ান কাপ বা উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচেও পাঁচটি গোল করলেন। তিনি আর্জেন্তিনারও প্রথম প্লেয়ার, যিনি দেশের জার্সিতে এক ম্যাচে ৫ গোল করার নজির গড়ে লিখে ফেললেন ইতিহাস।

রবিবার আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে স্পেনের আল সাদর স্টেডিয়ামে (৫ জুন) এস্তোনিয়ার বিপক্ষে আর্জেন্তিনার হয়ে একাই ৫ গোল করেন তিনি। ম্যাচটি ৫-০ জেতে আর্জেন্তিনা। এই নিয়ে টানা ৩৩ ম্যাচ অপরাজিত থাকল আর্জেন্টিনা।

এর আগেও পিএসজি তারকা পেশাদার কেরিয়ারে আরও একবার একই ম্যাচে ৫ গোলের নজির গড়েছিলেন। ২০১২ সালের সেই ম্যাচে বার্সেলোনার জার্সিতে বায়ার লেভারকুসেনের বিপক্ষে ৫ গোল করেছিলেন তিনি। সেই ম্যাচটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল ছিল। সেটি ছিল তাঁর প্রথম ৫ গোল। এ বার দেশের জার্সিতে একই নজির গড়লেন তিনি। ক্লাব এবং দেশের হয়ে একক ম্যাচে ৫ গোল করাা নিঃসন্দেহে বিরল কৃতিত্ব।

রবিবার মেসি ৮ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোলের সূচনা করেন এবং তার পর ৪৫, ৪৭, ৭০, এবং ৭৫ মিনিটে গোলগুলি করেন। মেসির জন্যই একেবারে এক তরফা ভাবে এস্তোনিয়াকে হারায় আর্জেন্তিনা। ম্যাচের পর সতীর্থ আলেজান্দ্রো গোমেজ বলেন, ‘লিও যা করে, সেটা দুরন্ত, অবিশ্বাস্য। আমরা সবাই জানি যে লক্ষ্যের সামনে বল পেলে কোনও ছাড় নেই ওর।’

আর্জেন্তিনার প্রধান কোচ লিওনেল স্কালোনি আবার বলেছেন, ‘মেসিকে নিয়ে আর কী বলব, আমার সত্যিই জানা নেই। এটা খুব কঠিন কাজ। ওকে বর্ণনা করার মতো কোনও শব্দ আর অবশিষ্ট নেই। ও যা কিছু তৈরি করে, তা অনন্য। এবং এই দলে ওকে পেয়ে আনন্দিত। আমি শুধু ওকে ধন্যবাদ জানাব। ওকে দেখে খুব উচ্ছ্বসিত।’

এ দিনের ম্যাচের পরে মেসি ব্রাজিলের কিংবদন্তি পেলেকে টপকে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর পরে ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছেন। মেসির এখন ক্লাব এবং দেশের হয়ে ৭৬৯টি গোল রয়েছে। যেখানে রোনাল্ডোর মোট গোলসংখ্যা ৮১৩। পেলে তাঁর বর্ণাঢ্য কেরিয়ারে ৭৬৭টি গোল করেছিলেন।

বন্ধ করুন