বাংলা নিউজ > ময়দান > ফিজিও করোনা আক্রান্ত, ক্রিকেটাররা তো নয়! এমন বিতর্কের মাঝে ম্যাঞ্চেস্টার টেস্ট বাতিল হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন ইনজামাম
ইনজামাম-উল-হক ও বিরাট কোহলি।
ইনজামাম-উল-হক ও বিরাট কোহলি।

ফিজিও করোনা আক্রান্ত, ক্রিকেটাররা তো নয়! এমন বিতর্কের মাঝে ম্যাঞ্চেস্টার টেস্ট বাতিল হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন ইনজামাম

  • ফিজিওর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ হওয়ায় ক্রিকেটারদের আতঙ্কিত হওয়া যথাযথ কিনা, এবিষয়ে নিজের মতামত জানালেন প্রাক্তন পাক অধিনায়ক।

ভারতীয় ক্রিকেটারদের কেউ করোনা পজিটিভ নন। তা সত্ত্বেও ম্যাঞ্চেস্টার টেস্ট বাতিল হওয়ায় প্রশ্ন তুলছেন সমালোচকরা। ভাবখানা এমন যে, ফিজিও করোনা আক্রান্ত, ক্রিকেটাররা তো কেউ নন। তাহলে কোহলিরা চাইলেই নাকি ম্যাচ আয়োজন করা যেত।

ব্রিটিশ ক্রিকেটমহলের এমন বিতর্কিত দাবির মাঝে উলট পথে হেঁটে ইনজামাম-উল-হক পাশে দাঁড়ালেন টিম ইন্ডিয়ার। ফিজিও করোনা আক্রান্ত হওয়ায় আশঙ্কিত কোহলিদের শেষ টেস্টে মাঠে নামতে না চাওয়ার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করলেন প্রাক্তন পাক অধিনায়ক।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ইনজামাম জানান, চতুর্থ টেস্টে ভারতীয় দল কোচ ও সাপোর্ট স্টাফদের ছাড়াই মাঠে নেমেছে। তবে শেষ টেস্টের আগে ফিজিও করোনা আক্রান্ত হওয়ায় ক্রিকেটারদের আতঙ্কিত হওয়া স্বাভাবিক। কেননা, ফিজিও ক্রিকেটারদের সঙ্গে ট্রেনিংয়ের সময় মাঠে এবং ড্রেসিংরুমে সারাক্ষণ উপস্থিত থাকেন।

ইনজি বলেন, 'করোনার জন্য ভারত-ইংল্যান্ড শেষ টেস্ট অনুষ্ঠিত না হওয়া দুর্ভাগ্যের। অসাধারণ একটা সিরিজ ছিল। তবে ভারতীয় ক্রিকেটারদের দোষ দেওয়া যায় না। ওরা চতুর্থ টেস্ট খেলেছে কোচ ও সাপোর্ট স্টাফদের ছাড়াই। তা সত্ত্বেও মাঠে দৃঢ় সংকল্প দেখিয়েছে ওদের। এবার তো ফিজিও করোনা আক্রান্ত হয়, যে কিনা সাম্প্রতিক সময়ে ক্রিকেটারদের ট্রেনিং করিয়েছে। ড্রেসিংরুমে ও ট্রেনিংয়ের সময় মাঠে সারাক্ষণ ক্রিকেটারদের সঙ্গে থাকে ফিজিও। তাই ওদের আতঙ্কিত হওয়া স্বাভাবিক। ক্রিকেটাররা এখন নেগেটিভ হতে পারে। তবে করোনার উপসর্গ ২-৩ দিন পরেও দেখা দিতে পারে।'

টেস্ট ক্রিকেটে ফিজিওর গুরুত্ব কতটা, সেটাও জানিয়েছেন ইনজামাম। তিনি বলেন, ‘সাপোর্ট স্টাফ ছাড়া খেলতে নামা সত্যিই কঠিন। যখন আপনি চোট পাবেন বা অস্বস্তি দেখা দেবে, তা থেকে ম্যাচ ফিট হয়ে ওঠার জন্য ট্রেনার ও ফিজিওর দরকার হয়। ক্রিকেটাররা ফিট হওয়া সত্ত্বেও ভারত কেন ম্যাঞ্চেস্টার টেস্ট খেলল না একথা ভেবে লোকে অবাক হতে পারে। তবে ক্রিকেটে ফিজিও, ট্রেনারদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। টেস্ট ম্যাচে দিনের খেলা শেষ হলে ফিজিওর কাজ শুরু হয়। খেলোয়াড়দের পরের দিনের জন্য প্রস্তুত করে তোলাই ফিজিওর দায়িত্ব। সুতরাং, করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ হওয়া সত্ত্বেও ভারত না খেলায় ওদের দোষ দেওয়া উচিত নয়।'

বন্ধ করুন