বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘আন্ডারডগ’ তকমা নিয়েই ভারতের মাটিতে ৩৩ বছরের খরা কাটাতে বদ্ধপরিকর রস টেলর
কিউয়ি তারকা রস টেলর। ছবি- টুইটার।
কিউয়ি তারকা রস টেলর। ছবি- টুইটার।

‘আন্ডারডগ’ তকমা নিয়েই ভারতের মাটিতে ৩৩ বছরের খরা কাটাতে বদ্ধপরিকর রস টেলর

  • ১৯৫৫ সালের পর আর কোনোদিনও ভারতে টেস্ট সিরিজে জেতেনি কিউয়িরা, ৩৪ টেস্টে জয় এসেছে মাত্র দু'টিতে।

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের পর লাল বলের ক্রিকেটে প্রথমবার মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত ও নিউজিল্যান্ড। তবে সাউদাম্পটনে কিউয়িরা কিস্তিমাত করলেও সেই সময় আর এই সময়ের মধ্যে পরিবেশ, পিচ সব কিছুরই আকাশ-পাতাল পার্থক্য। উপরন্তু ভারতের মাটিতে কিউয়িদের জঘন্য টেস্ট রেকর্ড। 

তবে সিরিজ শুরু আগে বহু যুদ্ধের সৈনিক কিউয়ি দলের তারকা ব্যাটার রস টেলর কিন্তু দলের প্রস্তুতিতে বেশ খুশি। stuff.co.nz-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে টেলর জানান, ‘এখনও আমরা দারুণভাবে নিজেদের প্রস্তুতি সেরেছি। হ্যাঁ, নেট বোলাররা না থাকায় একটু তো আগের থেকে আলাদা অভিজ্ঞতা হয়েছেই। তাই আমাদের বোলারদের বিরুদ্ধে খেলেই প্রস্তুতি সেরেছই। সকলেই স্পিনারদের বিরুদ্ধে পালা করে খেলে নিজেদের প্রস্তুতি সেরেছে। ওরা প্রচুর ওভার বল করেছে।’

কিন্তু ভারতের বুকে কিউয়িদের রেকর্ড কিন্তু টেলরদের জন্য আশার আলো দেখাচ্ছে না। ১৯৫৫ সালে নিজেদের প্রথম ভারত সফর ছাড়া আর কোনদিন টেস্ট সিরিজ জেতেনি কিউয়িরা। শেষ টেস্ট জয় এসেছিল ১৯৮৮ সালে। ভারতে খেলা ৩৪টি টেস্টে কিউয়িরা আজ অবধি মাত্র দু'টিতে জয়ের মুখ দেখেছে, ড্র করেছে ১৬টি। গত দুই সফরে তো হোয়াইটওয়াশও হতে হয়েছিল তাদের। এমন রেকর্ডকে বদলাতে পরিবেশের সঙ্গে দ্রুত মানিয়ে নেওয়াই আসল বলে মনে করছেন টেলর। 

টিম ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে তাদের দেশের মাটিতে কিউয়িরা ‘আন্ডারডগ’ মেনে নিয়েই টেলর বলেন, ‘ভারতে খেললে যে ভারত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যে জায়গায়ই থাকুক না কেন, আর প্রতিপক্ষ বিশ্বের এক নম্বর দলই হোক না কেন, তারা সবসময় আন্ডারডগই থাকবে। ওরা বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে বিশ্রাম দিলেও দলটা কিন্তু যথেষ্ট মজবুত। ওরা তো এই পরিবেশে বড় হয়েছে, তাই জানেও। আমাদের ক্ষেত্রে দ্রুত আমদের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে।’

বন্ধ করুন