বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > একেই DC প্লে-অফে না ওঠায় মন খারাপ, তার উপর বড় অঙ্কের টাকা প্রতারণার শিকার পন্ত
ঋষভ পন্ত।

একেই DC প্লে-অফে না ওঠায় মন খারাপ, তার উপর বড় অঙ্কের টাকা প্রতারণার শিকার পন্ত

  • গত বছর পন্ত এবং তাঁর ম্যানেজার পুনিত সোলাঙ্কি ১.৬৩ কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগ আনেন এই মৃনাঙ্কের বিরুদ্ধে। চেক বাউন্স করার পরেই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসে। প্রতারক এই ক্রিকেটার বেশ কয়েক জন তারকার নাম করে পন্তকে প্রলোভিত করেন।

ঋষভ পন্তের সময়টা সত্যিই খারাপ যাচ্ছে। একেই গ্রুপ লিগে তাদের শেষ ম্যাচে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কাছে হেরে আইপিএল থেকে ছিটকে গিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। তার উপর আবার ১.৬৩ কোটি টাকা প্রতারিত হলেন ঋষভ পন্ত। প্রতারক মৃনাঙ্ক সিং নামে এক ব্যক্তি। তিনি আপাতত পুলিশি হেফাজতে। এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অন্য এক ব্যবসায়ীকেও প্রতারণা করার অভিযোগ উঠেছে।

মিড ডে-র প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতারক মৃনাঙ্ক হরিয়ানার ক্রিকেটার। তিনি প্রলোভন দেখাতেন যে, দামি ব্র্যান্ডের জুয়েলারি, ঘড়ি, ব্যাগ, মোবাইল ফোন এবং অন্যান্য ই-গ্যাজেট বিশাল ছাড়ে কেনার ব্যবস্থা করে দেবেন।

আরও পড়ুন: ‘ও ভালো ম্যাচ রিড করতে পারে’, উত্তরসূরি হিসেবে DC অধিনায়ককেই ভোট দিচ্ছেন রোহিত?

গত বছর পন্ত এবং তাঁর ম্যানেজার পুনিত সোলাঙ্কি ১.৬৩ কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগ আনেন এই মৃনাঙ্কের বিরুদ্ধে। চেক বাউন্স করার পরেই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসে। প্রতারক এই ক্রিকেটার বেশ কয়েক জন তারকার নাম করে পন্তকে প্রলোভিত করেন। তা ছাড়া পন্তকে তিনি বলেছিলেন, তাঁর একাধিক লাক্সারি আইটেম ভালো দামে বিক্রি করে দিতে পারবেন।

ঋষভ পন্ত তার পরেই নিজের কালেকশনে থাকা ফ্র্যাঙ্ক মুলার ভ্যানগার্ড সিরিজের ঘড়ি (মূল্য ৩৬.২৫ লক্ষ টাকা) এবং রিচার্ড মিলের ঘড়ি (৬২.৬০ লক্ষ টাকা) মৃনাঙ্ককে দেন। এ ছাড়াও একাধিক জিনিস কেনার জন্য পন্ত সেইব্যক্তিকে ২ কোটি টাকা দিয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

তবে মৃনাঙ্ক সেই মূল্যের জিনিস পন্তকে দেননি বলে অভিযোগ। দুই তরফে ১.৬৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের অঙ্ক ধার্য করা হয়েছে। তবে মৃনাঙ্ক পরে যে চেক দেন তা-ও বাউন্স করে। তার পরেই এফআইআরের সিদ্ধান্ত নেন ঋষভ পন্ত।

বন্ধ করুন