বাংলা নিউজ > ময়দান > WTC খেতাব জিতে দেশে ফিরে জনগণের আবেগের জোয়ারে ভাসলেও আক্ষেপের সুর ওয়াগনারের গলায়
খেতাব হাতে কিউয়ি দলের উচ্ছ্বাস। ছবি- এএনআই।
খেতাব হাতে কিউয়ি দলের উচ্ছ্বাস। ছবি- এএনআই।

WTC খেতাব জিতে দেশে ফিরে জনগণের আবেগের জোয়ারে ভাসলেও আক্ষেপের সুর ওয়াগনারের গলায়

  • ২১ বছর পর প্রথমবার আইসিসি ট্রফি জেতে কিউয়ি দল।

অতীতের নিরন্তর গ্লানিকে দূরে সরিয়ে সাউদাম্পটনে ভারতকে পরাজিত করে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ খেতাব জেতে নিউজিল্যান্ড। কিউয়ি ক্রিকেটারদের পাশাপাশি ছোট্ট দেশ নিউজিল্যান্ডের জনগণের কাছেও যে এই জয়ের গুরুত্ব কতটা তা তাঁদের দল দেশে ফেরার পরই আরও ভালভাবে বোঝা গেছে।

দুই দশকেরও বেশি সময় পরে আইসিসির ট্রফি জেতা কিউয়ি তারকারা দেশে ফেরার পর জনগণের উচ্ছ্বাস, আনন্দ ও শুভেচ্ছাবার্তায় আপ্লুত। নিউজিল্যান্ডে ফেরার পর সেখানকার দৃশ্যটা তুলে ধরেন তারকা ফাস্ট বোলার নীল ওয়াগনার।

ওয়াগনার বলেন, ‘আমার মনে হয় না এর আগে কোনদিন কাস্টমস অফিসে আমাদের এভাবে স্বাগত জানানো হয়েছে। সবাই আমাদের অভিনন্দন জানায় এবং সকলেই খুব খুশি ছিল। ওরা আমাদের পাসপোর্ট হাতে নিয়েও সবার আগে মেসের (পুরস্কারহিসাবে প্রাপ্ত দন্ড) খোঁজ করছিল। সকলেই ওই মেসের সঙ্গে দূর থেকে হলেও ছবি তুলতে চাইছিল, এমনকী পুলিশ অফিসাররাও আমাদের থামিয়ে একই দাবি করছিল। সকলের মুখে এমন হাসি দেখতে সত্য়ি বলতে দারুণ লাগছিল।’

বর্তমানের মুশকিল পরিস্থিতিতে শারীরিক দূরত্ববিধি বজায় রেখেই সবকিছু করতে হয়েছে। এমন আনন্দের মুহূর্তে এই দূরত্ববিধি কিছুটা হলেও তাঁদের বিজয় উৎসবকে ফিঁকে করছে বলে আক্ষেপের সুর ওয়াগনারের গলায়। তবে পরক্ষণেই বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এই বিধি মেনে চলা যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা মনে করিয়ে দিতেও ভোলেননি কিউয়ি ফাস্ট বোলার।  

বন্ধ করুন