বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হাওড়ায় বিজেপির কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠি, ধুন্ধুমার
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

হাওড়ায় বিজেপির কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠি, ধুন্ধুমার

  • বিজেপির অভিযোগ, রাজ্যের অন্যান্য জায়গার মতো এখানেও তৃণমূলের বদলে আক্রান্তদের বিরুদ্ধেই অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ।

বিজেপির পুলিশ কমিশনারের দফতর অভিযানকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল হাওড়ায়। শনিবার হাওড়া সিটি পুলিশ কমিশনারের দফতর ঘেরাওয়ের ডাক দেয় বিজেপি। দফতরের কাছে পুলিশি ব্যারিকেড ভেঙে বিজেপি কর্মীরা এগোতে গেলে সংঘর্ষ বাঁধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠি চালায় পুলিশ। 

ঘটনার সূত্রপাত শনিবার সকাল ১০টার কিছু পরে। হাওড়া সিটি পুলিশের অধীনস্থ জগদীশপুর পঞ্চায়েতের সামনে পঞ্চায়েত প্রধান গোবিন্দ হাজরাকে কিছু বিজেপিকর্মী মারধর করেন বলে অভিযোগ। পালটা তৃণমূল কর্মীরা বাধা দিলে সংঘর্ষ বাঁধে। এর পর ২ বিজেপি কর্মীকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয় তৃণমূল। 

বিজেপির অভিযোগ, রাজ্যের অন্যান্য জায়গার মতো এখানেও তৃণমূলের বদলে আক্রান্তদের বিরুদ্ধেই অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ। এই অভিযোগে বেলা বাড়তে সিটি পুলিশের দফতর অভিযানের ডাক দেয় বিজেপি। বিজেপি কর্মীরা ব্যারিকেড ভেঙে কমিশনারের দফতরের দিকে এগনোর চেষ্টা করলে বাধা দেন পুলিশকর্মীরা। দুপক্ষের হাতাহাতিতে ধুন্ধুমার বেঁধে যায়। এর পর সেখানেই বসে পড়েন বিজেপি কর্মীরা। অভিযোগ এর পর লাঠি চালিয়ে বিজেপি কর্মীদের এলাকা থেকে সরিয়ে দেয় RAF. 

বিজেপির দাবি, রাজ্যের অন্যান্য জায়গার মতো হাওড়াতেও আক্রান্তদের বিরুদ্ধেই অভিযোগ দায়ের করছে পুলিশ। আর আক্রমণকারী তৃণমূল নেতাকর্মীরা বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এমনকী বিজেপিকে বিক্ষোভ দেখাতেও দেওয়া হচ্ছে না। বিজেপি কর্মীরা সুরক্ষিত না থাকলে এখানে তৃণমূল নেতারাও সুরক্ষিত থাকবেন না। 

জগদীশপুর পঞ্চায়েতের সভাপতি গোবিন্দ হাজরা বলেন, জেলফেরত দুষ্কৃতীদের নিয়ে আমাকে মারতে এসেছিল বিজেপি। ২ জনকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

 

বন্ধ করুন