বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > উপ-নির্বাচনের আগেই খড়দহে 'খেলা' তৃণমূলের, বিজেপি ছাড়লেন প্রায় ৫০০ জন মতুয়া
উপ-নির্বাচনের আগেই খড়দহে 'খেলা' তৃণমূলের, বিজেপি ছাড়লেন প্রায় ৫০০ জন মতুয়া (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
উপ-নির্বাচনের আগেই খড়দহে 'খেলা' তৃণমূলের, বিজেপি ছাড়লেন প্রায় ৫০০ জন মতুয়া (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

উপ-নির্বাচনের আগেই খড়দহে 'খেলা' তৃণমূলের, বিজেপি ছাড়লেন প্রায় ৫০০ জন মতুয়া

পার্থ মতুয়া সম্প্রদায়ের উদ্দেশে জানান, ‘‌মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বলেছিলেন, সেটাই হয়েছে।'

খড়দহে ভোটের ঠিক মুখে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন প্রায় ৫০০ জন। ভোটের আগে এই যোগদান তৃণমূল শিবিরে আত্মবিশ্বাস আরও বাড়াবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

খড়দহে বিলকান্দা ২ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এই যোগদান পর্বের আয়োজন করা হয়েছিল। এই যোগদান পর্বে হাজির ছিলেন দমদমের সাংসদ সৌগত রায়, বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, সুবোধ অধিকারী। সাংসদ সৌগত রায়ের উপস্থিতিতেই অনেক মতুয়া সম্প্রদায়ের বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগ দেন। এই প্রসঙ্গে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় জানান, ‘‌বিলকান্দা ১ ও ২ ব্লক মিলে ৪৪৩ জন বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগ দিয়েছে। তাঁদের সকলকে স্বাগত। সামনেই উপনির্বাচন রয়েছে। সকলে মিলেমিশে কাজ করুন।’‌

বুধবার যোগদান-পর্বে ব্যারাকপুর–দমদম সাংগঠনিক জেলার সভাপতি পার্থ ভৌমিক জানান, 'গত বিধানসভা ভোটে এই বিলকান্দা থেকে তৃণমূল প্রার্থী ১,১০০ ভোটে হেরে গিয়েছিলেন। কিন্তু যেভাবে প্রচুর মানুষ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন, তাতে এবারে আমাদের আশা তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ৫ হাজার ভোটে জিতবেন। উল্লেখ্য, খড়দহের তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় শ্যামসুন্দরের মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করেন। সেই সঙ্গে মনোনয়নপত্রও জমা দেন তিনি।

খড় যারা যোগদান করেন, তাঁরা সকলেই মতুয়া সম্প্রদায়ের। গত বিধানসভা ভোটে মতুয়া সম্প্রদায়ের অনেক মানুষ বিজেপিকে সমর্থন করেছেন বলেই ওয়াকিবহাল মহলের মত। এই প্রসঙ্গে পার্থ মতুয়া সম্প্রদায়ের উদ্দেশে বলেন, ‘‌মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বলেছিলেন, সেটাই হয়েছে। সিএএ তো হল না। তাই বলে কি ভারতে থাকা আটকে গিয়েছে? আটকে যায়নি। এতদিন বাদে মতুয়া সম্প্রদায়ের লোকেরা সেই কথা বুঝতে পেরেছেন। মতুয়া সম্প্রদায়ের লোকেরা বুঝতে পেরেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই ঠিক কথা বলছেন। আর বিজেপির লোকেরা তাঁদের প্রলোভন দেখাচ্ছেন। সেই কারণেই তাঁরা দলে দলে আবার তৃণমূলে ফেরত আসছেন।’‌

বন্ধ করুন