বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সাতসকালে চায়ের দোকানে ঢুকে পড়ল ডাম্পার, মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় মৃত্যু চারজনের
ডাম্পার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চায়ের দোকানে ঢুকে পড়ে।
ডাম্পার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চায়ের দোকানে ঢুকে পড়ে।

সাতসকালে চায়ের দোকানে ঢুকে পড়ল ডাম্পার, মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় মৃত্যু চারজনের

  • ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবার জেলার খড়গ্রাম থানার অন্তর্গত ভালকুন্দি মোড়ে।

বিধিনিষেধ একটু আলগা হতেই স্থানীয় কয়েকজন রাস্তার ধারে চায়ের দোকানে বসে চা খাচ্ছিলেন। তখনই মাল বোঝাই একটি ডাম্পার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চায়ের দোকানে ঢুকে পড়ে। প্রচণ্ড ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় চারজনের। ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদ জেলার খড়গ্রাম থানার অন্তর্গত ভালকুন্দি মোড়ে। শুক্রবার সকালের এই দুর্ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। আর ক্ষোভ তৈরি হয় সাধারণ মানুষের।

স্থানীয় সূত্রে খবর, শুক্রবার সকালে ভালকুন্দি মোড়ে চায়ের দোকানে বসেছিলেন কয়েকজন। তখন নিয়ন্ত্রণ হারানো ডাম্পারটি ধাক্কা মেরে দোকানের ভেতরে প্রায় ঢুকে পড়ে। তার জেরে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দু’জনের। গুরুতর আহত হন আরও চারজন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয়েছিল খড়গ্রাম ব্লক গ্রামীণ হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসকরা আরও দু’জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়ে দেন। তবে বাকি দু’জনকে চিকিৎসার জন্য বহরমপুরে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। এই ঘটনায় স্থানীয় মানুষদের ক্ষোভ দেখা গিয়েছে। এলাকায় সিগনালিং পোস্ট নেই বলেই বারবার দুর্ঘটনা ঘটছে বলে তাঁদের অভিযোগ।

এলাকার মানুষের এই ক্ষোভ পুলিশের উপরও আছড়ে পড়ে। তবে পুলিশ সূত্রে খবর, এই দুর্ঘটনায় মৃতরা হলেন প্রকাশ মার্জিত (২৯), উজ্জ্বল শেখ (১৮), আলামিন শেখ (৬৫) এবং হেপাজুল শেখ (৬৫)। মর্মান্তিক দুর্ঘটনার জেরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ঘটনাস্থলে রয়েছে খড়গ্রাম থানার পুলিশ। পুলিশ ঘাতক ডাম্পারটিকে আটক করেছে। মৃত চারজনই এলাকার বাসিন্দা। তাই ক্ষোভ মানুষের মধ্যে বেশি দেখা গিয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে।

বন্ধ করুন