বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > জুয়ায় হেরে লাখ দুয়েক দেনা,আমবাগানে শেষ করে দিলেন নিজেকে
জামাইয়ের দেহ ভ্যানে চাপিয়ে নিয়ে এলেন শ্বশুর (নিজস্ব চিত্র)
জামাইয়ের দেহ ভ্যানে চাপিয়ে নিয়ে এলেন শ্বশুর (নিজস্ব চিত্র)

জুয়ায় হেরে লাখ দুয়েক দেনা,আমবাগানে শেষ করে দিলেন নিজেকে

  • জুয়ার ঠেকে বার বার হেরে গিয়েছিলেন নিবারণ। সব মিলিয়ে জুয়ায় হেরে গিয়ে প্রায় লাখ দুয়েক টাকা দেনা হয়ে গিয়েছিল নিবারণের।

জুয়ার ঠেকে নিয়মিত যাতায়াত। আর সেই জুয়াই কাল হল নিবারণ মণ্ডলের জীবনে। জুয়ার ঠেকে বার বার হেরে গিয়েছিলেন নিবারণ। সব মিলিয়ে জুয়ায় হেরে গিয়ে প্রায় লাখ দুয়েক টাকা দেনা হয়ে গিয়েছিল নিবারণের। যার জেরে হতাশায় ডুবে গিয়েছিলেন ওই ব্য়ক্তি। আর তারই পরিণতিতে ৪০ বছর বয়সী নিবারণ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। মালদার ইংরেজবাজার থানার দুর্গাপুরের বেকিং এলাকার ঘটনা। বৃহস্পতিবার ভোরে বাড়ি থেকে প্রায় ৫০০ মিটার দূরে আম বাগানের একটি গাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে তার দেহ। গোটা ঘটনায় পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে নিবারণ একটি কোল্ড স্টোরের কর্মী ছিলেন। তবে সংসারে আর্থিক টানাটানি লেগেই থাকত। এদিকে এর সঙ্গেই যুক্ত হয়েছিল জুয়ার ভয়ঙ্কর নেশা। জুয়াতে টাকা জিতে সংসারকে স্বচ্ছল করার স্বপ্ন দেখতেন নিবারণ। কিন্তু হল ঠিক তার উল্টোটা। বার বার জুয়ার ঠেকে হেরে গিয়ে একেবারে সর্বস্বান্ত হয়ে গিয়েছিলেন নিবারণ। দিনের পর দিন আরও দারিদ্রতার অন্ধকারে ডুবে যাচ্ছিল গোটা পরিবার। এর সঙ্গেই যুক্ত হয়েছিল বাজারে বিপুল অঙ্কের ধারদেনা। মূলত ধার করে টাকা নিয়ে গিয়েও জুয়ার ঠেকে উড়িয়ে দিতেন নিবারণ। মৃতের শ্বশুর নিরঞ্জন মণ্ডল বলেন,  বাজারে প্রায় লাখ দুয়েক টাকা দেনা হয়ে গিয়েছিল জামাইয়ের। এর সঙ্গেই জুয়ার ঠেকে যাতায়াত ছিল। আমবাগানেই সুইসাইড করেছে জামাই। পুলিশ জানিয়েছে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। 

 

বন্ধ করুন