বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পুজো আসছে, বাঘ কিংবা কুমির দত্তক নেবেন? বিশেষ ব্যবস্থা শিলিগুড়িতে, খরচ কত?
বেঙ্গল সাফারিতে বন্য জন্তু দত্তক নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। (প্রতীকী ছবি সৌজন্যে -টুইটার)

পুজো আসছে, বাঘ কিংবা কুমির দত্তক নেবেন? বিশেষ ব্যবস্থা শিলিগুড়িতে, খরচ কত?

  • ভাল্লুক, হরিণও দত্তক নেওয়া যায়। কুমির, কচ্ছপও দত্তক নিতে পারেন। মাসিক হাজার টাকায় আপনি ম্যাকাও কিংবা আফ্রিকান গ্রে প্যারটকেও দত্তক নিতে পারেন।

পুজো আসছে। একটা বাঘ দত্তক নেবেন? কিংবা কুমির? বন্য জীবজন্তুদের এই বিশেষ দত্তক নেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে বেঙ্গল সাফারিতে। কোনও ব্যক্তি ১ বছরের জন্য জীবজন্তু কিংবা পাখি দত্তক নিতে পারেন। অথবা তার থেকে কম নির্দিষ্ট সময়ের জন্যও পশু দত্তক নেওয়া যায়।নির্দিষ্ট অর্থের বিনিময়ে ও যাবতীয় নিয়ম মেনে তাদের দত্তক নেওয়া যেতে পারে। বেঙ্গল সাফারি সূত্রে খবর, এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে ওই পশুর খাওয়া দাওয়া, সেটি যাতে ভালো করে থাকতে পারে তার ব্যবস্থা করা হয়।

কোনও পশু দত্তক নিলে সেই বিশেষ পশুর খাঁচার সামনে সংশ্লিষ্ট অ্য়াডপ্টারের নাম অথবা সংস্থার নাম লেখা থাকবে। এই দত্তক নেওয়ার জন্য যে ফি দিতে হয় তা ৮০র জি ধারায় আয়কর মুক্ত। নিয়ম মেনে বিনামূল্যে চিড়িয়াখানা ঘুরে দেখারও ব্যবস্থা করা হয়।

বেঙ্গল সাফারি সূত্রে খবর, মাসিক ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে সাদা রয়াল বেঙ্গল টাইগার দত্তক নেওয়া যায়। এক্ষেত্রে একবছরের ফি ২ লাখ টাকা। চিতাবাঘ দত্তক নিতে গেলে প্রায় ১০ হাজার টাকা মাসিক খরচ হতে পারে। এক্ষেত্রে বাৎসরিক ফি ১ লাখ টাকা। এক শৃঙ্গ গণ্ডার খুব ভালো লাগে? সেই গণ্ডারও দত্তক নিতে পারেন। এক্ষেত্রে মাসিক খরচ ১০ হাজার টাকা। বছরে এক্ষেত্রে ১ লাখ টাকা খরচ হতে পারে।

বেঙ্গল সাফারিতে লক্ষী ও উর্মিলা নামে দুটি মহিলা হাতি রয়েছে। ওদেরও দত্তক নিতে পারেন আপনি। এক্ষেত্রে মাসিক খরচ ২০ হাজার টাকা। বছরে খরচ হবে ২ লাখ টাকা। এভাবেই ভাল্লুক, হরিণও দত্তক নেওয়া যায়। কুমির, কচ্ছপও দত্তক নিতে পারেন। মাসিক হাজার টাকায় আপনি ম্যাকাও কিংবা আফ্রিকান গ্রে প্যারটকেও দত্তক নিতে পারেন। ফি ও নিয়মের পরিবর্তন হতে পারে। সেক্ষেত্রে যাবতীয় ফি ও অন্যান্য নিয়মাবলীর ব্যাপারে অবশ্যই বেঙ্গল সাফারি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। 

বন্ধ করুন