বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পুলিশের সঙ্গে হাত মিলিয়েই কাজ করবে বিএসএফ, বললেন উত্তরবঙ্গে বাহিনীর IG
BSF-এর উত্তরবঙ্গের আইজি রবি গান্ধী।
BSF-এর উত্তরবঙ্গের আইজি রবি গান্ধী।

পুলিশের সঙ্গে হাত মিলিয়েই কাজ করবে বিএসএফ, বললেন উত্তরবঙ্গে বাহিনীর IG

  • তিনি আরও বলেন, নতুন নির্দেশিকায় কার্যক্ষেত্রে তেমন কোনও বড় রকমফের হবে না। কারণ এতদিন সীমান্তের ১৫ কিলোমিটার থেকে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত রাজ্য পুলিশের সঙ্গে তল্লাশি চালাত বিএসএফ।

বিএসএফের সঙ্গে রাজ্য পুলিশের সম্পর্ক খুবই দৃঢ়। আগামীতেও রাজ্য পুলিশকে সাথে নিয়েই কাজ করবেন সীমান্তরক্ষীরা। বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক বৈঠকে এমনই বললেন BSF-এর উত্তরবঙ্গ ফ্রন্টিয়ারের আইজি রবি গান্ধী। তিনি জানিয়েছেন, বিএসএফের গতিবিধির এলাকা বাড়লেও আইনি ক্ষমতা বাড়েনি।

এদিন রবি গান্ধী বলেন, ভারত সরকার বিএসএফকে তিনটি আইনে সীমান্ত থেকে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত পদক্ষেপ করার অধিকার দিয়েছে। তার মধ্যে একটি আইনে চোরাচালানের খবর পেলে তল্লাশি চালাতে পারবে বাহিনী। অন্য ২টি আইনে অনুপ্রবেশকারীকে আটক করে তুলে দিতে পারবে পুলিশের হাতে। তিনি বলেন, বিএসএফের হাতে FIR করার অধিকার নেই। তাই কোনও জিনিস বাজেয়াপ্ত করলে বা কাউকে আটক করলে সেই তুলে দিতে হবে পুলিশেরই হাতে।

তিনি আরও বলেন, নতুন নির্দেশিকায় কার্যক্ষেত্রে তেমন কোনও বড় রকমফের হবে না। কারণ এতদিন সীমান্তের ১৫ কিলোমিটার থেকে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত রাজ্য পুলিশের সঙ্গে তল্লাশি চালাত বিএসএফ। এখনও তারা সেই পথেই চলবে।

রবি গান্ধী বলেন, ‘বিএসএফ একটি পেশাদার বাহিনী। তারা দেশের সমস্ত আইন মেনে কাজ করে।’ সীমান্তে মহিলাদের তল্লাশির নামে শ্লীলতাহানির যে অভিযোগ দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ তুলেছেন তা খারিজ করে রবি গান্ধী বলেন, ‘শুধুমাত্র উত্তরবঙ্গ ফ্রন্টিয়ারেই বিএসএফের ৮০০ জন মহিলা জওয়ান রয়েছেন। তারা অন্য জওয়ানদের মতো দিন রাত সীমান্ত পাহারায় রয়েছেন। মহিলাদের তল্লাশি তাঁরাই করেন। কোথাও বিএসএফের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ উঠলে তার যথাযথ তদন্ত হয়। এমনকী পুলিশের অভিযোগ দায়েরের নজিরও রয়েছে।’

 

বন্ধ করুন