বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে গেলেই দিতে হয় তোলা! ব্যারাকপুরের সিএফ সরানো হল

গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে গেলেই দিতে হয় তোলা! ব্যারাকপুরের সিএফ সরানো হল

গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে গেলেই দিতে হয় তোলা! ব্যারাকপুরের সিএফ সরানো হল। প্রতীকী ছবি।

গত তিন বছর ধরে ব্যারাকপুর বারাসাত রোডে বিড়লা গেটে সরকারি বাস ডিপোতে অবস্থিত সিএফ-এ গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছিল।

ব্যারাকপুর বারাসাত রোডে অবস্থিত গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষার (সি এফ) স্থান পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। এই সিদ্ধান্তের নেপথ্যে রয়েছে তোলাবাজির অভিযোগ। সেখানে গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে গেলে তোলাবাজি নেওয়া হয়। সম্প্রতি, পরিবহন দফতরের কাছে বারংবার এই অভিযোগ এসেছে। সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরিবহন দফতর।

দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, গত তিন বছর ধরে ব্যারাকপুর বারাসাত রোডে বিড়লা গেটে সরকারি বাস ডিপোতে অবস্থিত সিএফ-এ গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছিল। সেক্ষেত্রে গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে গেলে এরজন্য গাড়ি পিছু ২০০ থেকে ২৫০ টাকা করে তোলা নেওয়া হচ্ছিল। এই তোলা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে শাসকদলের দুই গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে। সম্প্রতি তোলাবাজির দখলদারিকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষও বেঁধেছিল। সেই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছিল স্থানীয় শিউলি পঞ্চায়েতের এক সদস্যকে। যিনি এলাকার তৃণমূল নেতা। পরে অবশ্য তিনি জামিনে মুক্তি পেয়ে যান। কিন্তু, এরপরেও তোলাবাজির অভিযোগ এসেছে ওই সিএফ থেকে। সেই কারণে গাড়ির স্বাস্থ্য পরীক্ষা কেন্দ্রের স্থান পরিবর্তন করতে চায়ছে প্রশাসন।

আঞ্চলিক পরিবহন কার্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ব্যারাকপুর প্রশাসনিক ভবনের কাছে সিএফের জন্য নতুন জায়গা ঠিক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই জায়গাটা তুলনামূলকভাবে ছোট হলেও এখানে তোলাবাজি বন্ধ করা সম্ভব হবে বলে মনে করছে প্রশাসন। রাজ্য পরিবহণ দফতরের এক কর্মী জানিয়েছেন, ব্যারাকপুর বারাসাত রোডের বাস ডিপোয় জায়গা অনেক বেশি থাকায় সেখানে সিএফের জায়গা করা হয়েছিল। কিন্তু তোলাবাজির অভিযোগ ওঠায় তা সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এর ফলে তোলাবাজি বন্ধ করা যাবে বলে মনে করছে প্রশাসন।

বন্ধ করুন