বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় ফের লকডাউন হবে না তো? স্পষ্ট জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় ফের লকডাউন হবে না তো? স্পষ্ট জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

এদিন বিদেশ থেকে আসা বিমান নিয়ে বেশ বিরক্তবোধ করেন মুখ্যমন্ত্রী।

আর হাতে গোনা একটি দিন। তারপরেই বর্ষবরণের রাত। মেতে উঠতে চায় রাজ্যবাসী। কিন্তু সেখানে কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে করোনাভাইরাস। এমনকী রাজ্যে ওমিক্রন দেখা দিয়েছে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, তাহলে কি ফের লকডাউনের পথে হাঁটবে রাজ্য?‌ গঙ্গাসাগর থেকে কলকাতা ফেরার সময় রাজ্যবাসীকে এই প্রশ্নেরই জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি স্পষ্ট জানান, এখনই লকডাউন করা হবে না। তবে সংক্রমণ রুখতে বিদেশ থেকে আসা বিমান বন্ধ করা প্রয়োজন।

এদিন বিদেশ থেকে আসা বিমান নিয়ে বেশ বিরক্তবোধ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই তাঁকে বলতে শোনা যায়, ‘‌আমি ইউকে–কে ভালবাসি। কিন্তু দেখতে পাচ্ছি ওখানকার বিমানে করেই সংক্রমণ এদেশে বেশি ছড়াচ্ছে। আমরা সকলেই জানি বিদেশ থেকে যে বিমানগুলি আসছে, সেখান থেকেই ওমিক্রন ছড়াচ্ছে। অবিলম্বে বিদেশি বিমান ওঠানামা বন্ধ করা দরকার।’‌

ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় ফের লকডাউন হবে না তো? এই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্টভাষায় বলেন, ‘‌গত দু’বছর লকডাউন দেখেছি আমরা। মানুষের প্রচুর ক্ষতি হয়েছে। কর্মসংস্থানে প্রভাব পড়েছে। তাই এখনই লকডাউন করা হবে না। যে এলাকায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়বে সেখানে কনটেইনমেন্ট জোন করা হবে। বিধিনিষেধ জারি করা হবে। আর লক্ষ্য রাখা হবে জনজীবন যাতে ব্যাহত না হয়।’‌

বর্ষবরণে রাজ্যবাসী মাতলেও মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শ, বছরের শেষ ও শুরুতে আনন্দ করার সময়ও সচেতন হতে হবে। মাস্ক–স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। গঙ্গাসাগর মেলার ক্ষেত্রেও সতর্ক ভূমিকা পালন করতে হবে। রাজ্যের পক্ষ থেকে সবরকম চেষ্টা করা হচ্ছে। তাই মানুষকেও সচেতন হতে হবে। অকারণে ভিড় না করাই ভাল। কোমও আনন্দ যেন বেদনার কারণ না হয় লক্ষ্য রাখতে হবে।

বন্ধ করুন