বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Leopard: আলিপুরদুয়ারে বন্ধ চা বাগানে ফের খাঁচাবন্দি চিতাবাঘ, আতঙ্কে স্থানীয়রা

Leopard: আলিপুরদুয়ারে বন্ধ চা বাগানে ফের খাঁচাবন্দি চিতাবাঘ, আতঙ্কে স্থানীয়রা

খাঁচাবন্দি চিতাবাঘ। নিজস্ব ছবি

বন্ধ চা বাগানে একের পর এক চিতাবাঘ খাঁচাবন্দি হওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক বেড়েই চলেছে। বুধবার সকালে আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি ব্লকের বন্ধ দলসিংপাড়া চা বাগান থেকে খাঁচাবন্দি চিতাবাঘকে উদ্ধার করে জলদাপাড়ায় নিয়ে যান বনকর্মীরা। চিতাবাঘ খাঁচাবন্দিকে কেন্দ্র করে প্রচুর মানুষের জমে এলাকায়।

বেশ কয়েকদিন ধরেই চিতাবাঘের আতঙ্ক ছড়িয়েছিল এলাকায়। অবশেষে খাঁচাবন্দি হল সেই চিতাবাঘ। বুধবার সকালে আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি ব্লকের দলসিংপাড়া চা বাগানের ৬ নং সেকশনে বনদফতরের পাতা খাঁচায় ধরা পড়ে একটি পূর্ণবয়ষ্ক চিতাবাঘ। এ নিয়ে গত ১৫ দিনের মধ্যে ওই এলাকায় খাঁচাবন্দি হল দুটি পূর্ণবয়স্ক চিতাবাঘ।

আরও পড়ুন: মেরে ফেলেছিল ৬ শিশুকে, বন কর্মীদের ২ মাসের চেষ্টায় খাঁচা বন্দি হল সেই চিতাবাঘ

এদিন খাঁচাবন্দি চিতাবাঘ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা বনদফতরে খবর দেন। ঘটনাস্থলে নীলপাড়া রেঞ্জের বনকর্মীরা পৌছে চিতাবাঘকে উদ্ধার করে জলদাপাড়ায় নিয়ে যায়‌। এদিন খাঁচাবন্দি চিতাবাঘ দেখতে প্রচুর মানুষ সেখানে ভিড় করেন। স্থানীয়রা জানান, আরও অনেক চিতাবাঘ রয়েছে দলসিংপাড়া চা বাগানে। কারণ প্রতিনিয়ত চিতাবাঘ হানা দিয়ে ছাগল, বাছুর টেনে নিয়ে যাচ্ছে। বনদফতরের নীলপাড়া রেঞ্জের বিট অফিসার রুপেশ মোতি জানান, দলসিংপাড়া চা বাগান দীর্ঘদিন থেকে বন্ধ থাকায় চারিদিকে জঙ্গল, ঝোপঝাড়ে ভর্তি। আর এই ঝোপঝাড় চিতাবাঘের থাকার পক্ষে আদর্শ।

প্রসঙ্গত, বন্ধ চা বাগানে একের পর এক চিতাবাঘ খাঁচাবন্দি হওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক বেড়েই চলেছে। বুধবার সকালে আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি ব্লকের বন্ধ দলসিংপাড়া চা বাগান থেকে খাঁচাবন্দি চিতাবাঘকে উদ্ধার করে জলদাপাড়ায় নিয়ে যান বনকর্মীরা। চিতাবাঘ খাঁচাবন্দিকে কেন্দ্র করে প্রচুর মানুষের জমে এলাকায়। তবে চিতাবাঘ খাঁচাবন্দি হলেও তাতে আতঙ্ক কাটছে না স্থানীয়দের। তাদের আশঙ্কা, আরও চিতাবাঘ রয়েছে বন্ধ চা বাগানে। তাছাড়া মাঝেমধ্যেই এই সমস্ত চিতাবাঘ লোকালয়ে ঢুকে বাড়ি থেকে গবাদি পশু টেনে নিয়ে চলে যাচ্ছে। ফলে সেখানে আরও খাঁচা পাতা হবে বলে বন বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে।

এর আগে গত সপ্তাহে বৃহস্পতিবার সকালে আলিপুরদুয়ার জেলার দলগাঁও চা বাগানে বনদফতরের পাতা খাঁচায় ধরা পড়েছিল একটি চিতাবাঘ। জানা গিয়েছে, স্থানীয়রা খাঁচাবন্দি চিতাবাঘটিকে দেখতে পেয়ে বন বিভাগকে খবর দেন। পরে বনকর্মীরা পৌছে খাঁচাবন্দি চিতাবাঘকে উদ্ধার করে। চিতাবাঘকে উদ্ধারের পর সেটি দক্ষিণ খয়েরবাড়ি ব্যাঘ্র পুনর্বাসন কেন্দ্রে রাখা হয় বলে জানায় বন দফতর। চিতাবাঘ খাঁচাবন্দি হওয়ায় স্বস্তি পান স্থানীয়রা। তারপরে বন বিভাগের টহলদারি বাড়ানো হয়।

বাংলার মুখ খবর

Latest News

মেষ-বৃষ-মিথুন-কর্কট রাশির কেমন কাটবে সোমবার? জানুন রাশিফল চিনার পার্কের ৫ রেস্তোরাঁয় ভয়াবহ আগুন, নতুন বছরে পুড়ে ছাই স্ট্রিক্ট ডায়েটকে ফাঁকি দিয়ে ফুচকা খেতে যান ভিকি! বললেন, ‘কয়েক মাস না পেলেই…’ ফিল্ডিংয়ে চমক মুস্তাফিজের, বাংলাদেশ তারকার দুরন্ত ক্যাচে চমকে গেলেন সবাই- ভিডিয়ো ভূতুরে ভোটার গিজগিজ করছে, অবাক করা হিসেব, একী কাণ্ড তিরুপতিতে মৃত্যুর মুখে উপস্থিত বুদ্ধিতে ৯ মাসের সন্তানের প্রাণরক্ষা মায়ের,সিডনিতে যা ঘটেছে KKR জিততেই শাহরুখের সঙ্গে মাঠে আব্রাম, কিন্তু গম্ভীর হয়ে কেন বসে অনন্যা-সুহানা ব্যর্থ হল রোহিতের ধ্বংসাত্মক শতরান, ধোনির তিন ছক্কাই ম্যাচ জেতাল চেন্নাইকে লোকসভার আগে কলকাতা বিমানবন্দরে যাত্রীর ব্যাগ খুলতেই উদ্ধার ১১ লক্ষ নগদ টাকা কোনও তল্লাশি-অভিযান হয়নি, কপ্টারকাণ্ডে অভিষেকের দাবি উড়িয়ে দিলেন আইটি আধিকারিক

Latest IPL News

ফিল্ডিংয়ে চমক মুস্তাফিজের, বাংলাদেশ তারকার দুরন্ত ক্যাচে চমকে গেলেন সবাই- ভিডিয়ো ব্যর্থ হল রোহিতের ধ্বংসাত্মক শতরান, ধোনির তিন ছক্কাই ম্যাচ জেতাল চেন্নাইকে জয়পুরের মিউজিয়ামে বসছে বিরাটের মূর্তি, ছবি সামনে আসতেই হাসির রোল নেটমাধ্যমে ভিডিয়ো- প্রাক নববর্ষে মেজাজে নাইটরা, গুরবাজদের সঙ্গে রেস্তোরাঁয় গেলেন কোচ পণ্ডিত মাঠে নেমেই হার্দিকের বলে পরপর ৩টি ছক্কা, ওয়াংখেড়ে উত্তাল ধোনি ধামাকায়- ভিডিয়ো ক্যাচ ধরার চেষ্টায় প্যান্ট খুলে গেল রোহিত শর্মার! হেসেই খুন সতীর্থরা- ভিডিয়ো ‘খেটে খাও, সস্তায় রান মিলবে না’, LSG ব্যাটারদের কাজ কঠিন করার কৌশল ফাঁস শ্রেয়সের মুম্বইয়ে ঝাল খাবার খেয়ে একেবারে নাজেহাল স্টিভ স্মিথ-ভিডিয়ো ভিডিও-ওয়াংখেড়েতে প্রাক্তন বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ধোনিকে ঘিরে উচ্ছাস সমর্থকদের পাখির মতো শরীর ছুঁড়ে দুরন্ত ক্যাচ রমনদীপের, ইডেনে অনবদ্য ফিল্ডিং নাইটদের- Video

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.