বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > প্রবল জলোচ্ছ্বাসে বানভাসী দিঘা, গার্ডওয়াল টপকে ঢুকল জল, ঢেউয়ের উচ্চতা ৩০ ফুট
দিঘায় জলোচ্ছ্বাস। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
দিঘায় জলোচ্ছ্বাস। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

প্রবল জলোচ্ছ্বাসে বানভাসী দিঘা, গার্ডওয়াল টপকে ঢুকল জল, ঢেউয়ের উচ্চতা ৩০ ফুট

  • এমনকী এই জলোচ্ছ্বাসের জেরে ভেসে গিয়েছে দিঘা ও তার সংলগ্ন বাজার এলাকা।

আবার প্রবল জলোচ্ছ্বাসে ভাসল দিঘা। হঠাৎ এই জলোচ্ছ্বাসে আতঙ্কিত উপকূলবর্তী এলাকার মানুষজন। কারণ এমন ঘটনা তখনই ঘটে যখন বন প্রাকৃতিক দুর্যোগের সম্ভাবনা থাকে। মঙ্গলবার সৈকতের গার্ডওয়াল টপকে জল ঢুকে পড়ে দিঘা শহরে। এটাই সবাইকে ভাবিয়ে তুলেছে। এমনকী এই জলোচ্ছ্বাসের জেরে ভেসে গিয়েছে দিঘা ও তার সংলগ্ন বাজার এলাকা।

পূর্বের অভিজ্ঞতা অনুযায়ী, ইয়াস ঘূর্ণিঝড়ের সময় এমন জলোচ্ছ্বাস দেখেছিল পূর্ব মেদিনীপুরের বাসিন্দারা। তাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন উপকূলবর্তী জেলার বাসিন্দারা। উপকূল এলাকায় উত্তাল হয়ে উঠেছে সমুদ্র। দিঘায় জলোচ্ছ্বাসে চারিদিক জলমগ্ন। শুধু তাই নয়, উপকূলবর্তী অনেক গ্রামেও জল ঢুকেছে বলে খবর। ঢেউয়ের উচ্চতা সর্বোচ্চ প্রায় ৩০ ফুট বলে জানা গিয়েছে।

কিন্তু কেন এই জলোচ্ছ্বাস?‌ মঙ্গলবার কৌশিকী অমাবস্যার জেরে ভরা কোটাল রয়েছে। তার জেরেই দিঘার সমুদ্রে এই জলোচ্ছ্বাস হয়েছে বলে জানান আবহাওয়াবিদরা। সকাল থেকেই উত্তাল হতে শুরু করে সমুদ্র। পর্যটকদের জলে নামতে নিষেধ করে প্রশাসন। কিন্তু সমুদ্রের ধারে ভিড় জমিয়েছিলেন পর্যটকরা। এই জলোচ্ছ্বাস দেখে খুশি তাঁরা। অনেকে জানিয়েছেন, এত উঁচু ঢেউ আগে তাঁরা দেখেননি। জল ঢুকেছে দিঘা শহরের সৈকত লাগোয়া কিছু হোটেল ও রিসর্টে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরই ইয়াসের দাপটে দিঘায় ভেঙে পড়েছিল অনেকগুলি বাঁধ। জল ঢুকে ভেঙে পড়েছিল বহু কাঁচা বাড়ি। ক্ষতিগ্রস্ত হন একাধিক মানুষ। পরবর্তীতে এই বাঁধ ভাঙা নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্ন থেকে তিনি তদন্তের নির্দেশও দেন। এমনকী দিঘাকে আবার সাজিয়ে তোলার পরিকল্পনা করেন। তার মধ্যে ফের একটা জলোচ্ছ্বাস।

বন্ধ করুন