বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রাজ্যে ফের ধরা পড়ল ভুয়ো CBI আধিকারিক, রেস্তোরাঁয় টাকা চাইতে যাওয়াই হল কাল

রাজ্যে ফের ধরা পড়ল ভুয়ো CBI আধিকারিক, রেস্তোরাঁয় টাকা চাইতে যাওয়াই হল কাল

কাঁকসা থানা। ফাইল ছবি

কাঁকসা থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারি স্টিকার লাগানো গাড়ি করে এসে শনিবার রাতে কাঁকসার L&T মোড়ের ওই রেস্তোরাঁয় খাবার খান উৎপলবাবু ও তাঁর গাড়ির চালক। এর পর নিজেকে সিবিআই আধিকারিক পরিচয় দিয়ে রেস্তোরাঁর কর্মীদের কাছে টাকা দাবি করেন তিনি।

রাজ্যে ফের ধরা পড়ল ভুয়ো সিবিআই আধিকারিক। রেস্তোরাঁ থেকে তোলাবাজি করতে গিয়ে পশ্চিম বর্ধমানের কাঁকসা থেকে গ্রেফতার হলেন এক ব্যক্তি ও তাঁর গাড়ির চালক। ধৃত উৎপল চট্টোপাধ্যায় পুরুলিয়ার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। তাঁর গাড়ির চালক সাবুলাল বাউরিকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

কাঁকসা থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারি স্টিকার লাগানো গাড়ি করে এসে শনিবার রাতে কাঁকসার L&T মোড়ের ওই রেস্তোরাঁয় খাবার খান উৎপলবাবু ও তাঁর গাড়ির চালক। এর পর নিজেকে সিবিআই আধিকারিক পরিচয় দিয়ে রেস্তোরাঁর কর্মীদের কাছে টাকা দাবি করেন তিনি। বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হওয়ায় কাঁকসা থানায় খবর দেন রেস্তোরাঁর কর্মীরা। আটকে রাখা হয় ২ জনকে। পুলিশকর্মীরা গিয়ে পরিচয়পত্র দেখতে চাইলে তা দেখাতে পারেননি উৎপলবাবু। এর পর ২ জনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যান তাঁরা। আটক করা হয় গাড়িটিকেও।

শনিবার ধৃতদের আসানসোল আদালতে পেশ করলে বিচারক উৎপলকে ৩ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। আর সাবুলালকে পাঠানো হয়েছে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে।

কাঁকসা থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, জেরায় ধৃতরা স্বীকার করেছে, সিবিআই আধিকারিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন দোকানদার ও ব্যবসায়ীর কাছ থেকে টাকা আদায় করত তারা। কয়লাকাণ্ডের তদন্তে তারা কাঁকসায় এসেছে বলে দাবি করতেন উৎপল। কেউ টাকা না দিতে চাইলে নানা ভাবে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিতেন। সেই ভয়ে সিবিআই আধিকারিক আসল না নকল তা নিয়ে ভাবার সময় পেতেন না কেউ। অভিযুক্ত উৎপল চট্টোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসাবাদ করে আর কোথায় কোথায় সে এই প্রতারণা করেছে জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

 

বন্ধ করুন