বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Coronation Bridge: তিস্তার হড়পা বানে করোনেশন সেতু ক্ষতি হয়েছে? প্রাথমিক রিপোর্ট IIT খড়্গপুরের

Coronation Bridge: তিস্তার হড়পা বানে করোনেশন সেতু ক্ষতি হয়েছে? প্রাথমিক রিপোর্ট IIT খড়্গপুরের

করোনেশন সেতু। 

রবিবার থেকে এই সেতু পরীক্ষার কাজ শুরু করেছেন খড়গপুর আইআইটি বিশেষজ্ঞরা। এদিন সেতুর বেশ কিছু অংশ খতিয়ে দেখা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এর পাশাপাশি সেতুকে আরও মজবুত করার জন্য কাজ চলছিল। সেই কাজও চলবে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

গত ৪ অক্টোবর তিস্তার হড়পা বানে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দার্জিলিংয়ের সেবকের রেল সেতু। ইতিমধ্যেই সেখানে ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। আর এবার সেবক সেতু থেকে দু'কিলোমিটার দূরে তিস্তার ওপর অবস্থিত করোনেশন সেতুর আদৌও কোনও ক্ষতি হয়েছে কিনা, তা পরীক্ষা করা শুরু করল আইআইটি খড়্গপুরের একটি বিশেষজ্ঞ দল। যদি এখনও পর্যন্ত কোনও ত্রুটি ধরা পড়েনি। তবে জানা গিয়েছে, আগামী কয়েকদিন এই সেতু খতিয়ে দেখবেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন: তিস্তায় ভেসে আসা বাক্স খুলতেই জলপাইগুড়িতে বিস্ফোরণ, মৃত ১, আহত ৫, কী ছিল তাতে?

রবিবার থেকে এই সেতু পরীক্ষার কাজ শুরু করেছেন আইআইটি খড়্গপুরের বিশেষজ্ঞরা। সেতুর বেশ কিছু অংশ খতিয়ে দেখা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এর পাশাপাশি সেতুকে আরও মজবুত করার জন্য কাজ চলছিল। সেই কাজও চলবে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। প্রাথমিকভাবে সেতু যতটা খতিয়ে দেখা হয়েছে, তাতে আপাতত কোনও ত্রুটি ধরা পড়েনি। এ বিষয়ে দার্জিলিংয়ের জেলা শাসক ড. প্রীতি গোয়েল জানান, আপাতত সেতুর কোনও ত্রুটি খুঁজে পায়নি বিশেষজ্ঞ দল।

উল্লেখ্য, ৪ অক্টোবর তিস্তায় ভয়াবহ হড়পা বানে সেবক রেল সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেল। তারপরে আইআইটি খড়্গপুরের বিশেষজ্ঞরা সেতু পরিদর্শন করে রিপোর্ট দিয়েছেন। তাতে জানানো হয়েছে, সেতুর পাঁচ নম্বর পিলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাই কোনও দুর্ঘটনা এড়াতে ওই সেতুর উপর ট্রেনের গতি নিয়ন্ত্রণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। 

এদিকে, সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থাও ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শিলিগুড়ির সঙ্গে সিকিমের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়েছে।  তাই গাড়িগুলিকে সেক্ষেত্রে গজলডোবা হয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এর পাশাপাশি করোনেশন সেতুর ওপর দিয়েও প্রচুর গাড়ি চলাচল করছে। উল্লেখ্য, এই সেতুটি দার্জিলিং ও কালিম্পং জেলা দুটিকে সংযুক্ত করেছে। এই সেতুটি সেবক রেলওয়ে সেতুর সমান্তরালে অবস্থিত, যার প্রায় দুই কিমি দূরে তিস্তা নদীর উপর অবস্থিত। সেতুর নির্মাণ কাজ ১৯৪১ সালে। সেই সময় ৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে এই সেতু নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছিল। 

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

খেলতে গিয়ে বারবার মাথায় আঘাত পেয়েছেন এই অজি ক্রিকেটার! আবারও মাঠে লুটিয়ে পড়লেন স্টেজে আগুন ধরালেন, জামনগরে রণবীরের সঙ্গে ‘ডান্ডিয়া’ও নাচলেন অন্তঃসত্ত্বা দীপিকা সুপারবাইক চালানোর সময় দুর্ঘটনা, আহত গুজরাট টাইটানসের ক্রিকেটার রবিবার কলকাতায় চমক দিল সোনার দাম! বিয়ের মরশুমে রুপোর দরের ট্রেন্ড কোন দিকে? খুশিতে ডগমগ! বিয়ের পর শ্রীময়ীর সঙ্গে খাবারের থালা হাতেই নাচলেন কাঞ্চন ‘‌বুঝে যাওয়া দরকার ছিল এই পরিবার মোদীর সঙ্গে চলে গিয়েছে’‌, অকপট শিশির এক বাটি দইয়েই জাদু! রোজ খাবার পাতে রাখলেই দেখতে পাবেন এই সব শারীরিক বদল আসানসোল থেকে লড়ছি না! নাম তুললেন ‘বাঙালি-বিরোধী’ ভোজপুরি গায়ক, মুখ পুড়ল BJP-র শাহরুখের মুখে জয় শ্রীরাম ধ্বনি! আম্বানিদের অনুষ্ঠানে নিলেন সরস্বতী-লক্ষ্মীর নাম ‘আমায় একটা চুমু খাও’! বাসর রাতেই ৫৩-র কাঞ্চনের কাছে আবদার ‘কচি বউ’ শ্রীময়ীর

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.