বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌ওটা মানুষ মারার সরকার, লুট হচ্ছে’‌, কেন্দ্রীয় সরকারকে তুলোধনা মমতার
মেদিনীপুরের সভা থেকে মোদী সরকারকে তুলোধনা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। (PTI)

‘‌ওটা মানুষ মারার সরকার, লুট হচ্ছে’‌, কেন্দ্রীয় সরকারকে তুলোধনা মমতার

  • বুধবার মেদিনীপুরের সভা থেকে মোদী সরকারকে তুলোধনা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। মেদিনীপুর কলেজ ময়দানে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সম্মেলনে মোদী সরকারকে একপ্রকার লুঠেরা সরকার বলে তোপ দাগলেন মমতা।

পেট্রল, ডিজেল থেকে রান্নার গ্যাস—দাম বেড়েই চলেছে জ্বালানির। তার জেরে নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের। আর তা নিয়েই এবার ফের কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার মেদিনীপুরের সভা থেকে মোদী সরকারকে তুলোধনা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। মেদিনীপুর কলেজ ময়দানে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সম্মেলনে মোদী সরকারকে একপ্রকার লুঠেরা সরকার বলে তোপ দাগলেন মমতা।

ঠিক কী বলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো?‌ এদিন কর্মীদের সামনে তিনি বলেন, ‘‌আপনার ইনকাম ট্যাক্সের টাকা বাংলা থেকে তুলে নিয়ে যায় কেন্দ্র। সেই টাকা থেকে আমাদের দেয়। আমাদের যে টাকা দেওয়া হয় তা ওদের টাকা নয়। সেই টাকার মধ্যে আমরা কেন্দ্রের থেকে ৯২ হাজার কোটি টাকা পাই। সেই টাকা আমাদের দেয়নি। রান্নার গ্যাসের দাম লাফিয়ে বাড়ছে। মানুষের পকেট কেন্দ্রীয় সরকার লুট করছে। ডিজেল–পেট্রলের দাম বেড়ে গিয়েছে। ৮০০ ওষুধের দাম বেড়েছে। সুগার, কিডনির ওষুধ মারাত্মক দামী হয়েছে। এই সরকার মানুষ মারার সরকার। মানুষের পকেটে কাটছে।’‌

পশ্চিম মেদিনীপুরের কর্মীসভায় যোগ দেন সাংসদ দীপক অধিকারী, জুন মালিয়া–সহ অন্যান্যরা। এখানেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় সরকারকে তুলোধনা করে বলেন, ‘‌লুট, লুট, লুট হচ্ছে। কেউ যদি ২০০ টাকা খায় তাহলে তা দেখা যায়। আর পেট্রল–ডিজেল থেকে ১৭ লাখ কোটি টাকা মানুষের কাছ খেকে লুঠ করেছে কেন্দ্র। মানুষকে কত খেসারত দিতে হয়?‌ একবার ভেবে দেখুন। লক্ষ–কোটি টাকা তুলেছে। কোনও ভ্রুক্ষেপ নেই! আর প্রতিবাদ করলেই হিন্দু–মুসলমান দেখিয়ে দিচ্ছে। ওটা খুড়ের কল।’‌

মেদিনীপুর নিয়ে কী বললেন মমতা?‌ মেদিনীপুরের উন্নয়ন নিয়ে মমতা বলেন, ‘‌মেদিনীপুরের মানুষ আমাদের প্রচুর সাহায্য করেছে। মেদিনীপুর স্বাধীনতা সংগ্রামীদের জেলা। আগামী ৯ অগস্ট ফের আসব মেদিনীপুরে মিটিং করতে। মেদিনীপুর আগামী দিনের পথ দেখাবে। এখানে অনেক কাজ হয়েছে। আমরা দিল্লি জয় করবই। আপনারা পাশে থাকুন।’‌

বন্ধ করুন