বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Suvendu Adhikari: ‘বাংলাকে কলঙ্কিত করছে চোর শুভেন্দু’, পোস্টার খড়গপুরে, রাজনৈতিক তরজা
শুভেন্দু অধিকারী। ফাইল ছবি

Suvendu Adhikari: ‘বাংলাকে কলঙ্কিত করছে চোর শুভেন্দু’, পোস্টার খড়গপুরে, রাজনৈতিক তরজা

  • বিজেপির মেদিনীপুর সংগঠনিক জেলার সহ-সভাপতি অরূপ দাস বলেন, ‘তৃণমূল কংগ্রেসই এরকম নোংরামো করেছে। তৃণমূল যে চোর, চিটিংবাজদের দল ইডি এবং সিবিআইয়ের তদন্তে তা প্রমাণ হয়েছে। এখন মমতা ভয় পাচ্ছে।’

সম্প্রতি এসএসসি দুর্নীতি এবং গরু পাচারকাণ্ড নিয়ে রাজ্যকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করতে দেখা গিয়েছে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। এবার শুভেন্দু অধিকারীকে চোর, বেইমান, গদ্দার প্রভৃতিরম দাবি করে পোস্টারে ছয়লাপ হয়ে গেল পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুর পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের মালঞ্চ এলাকা। এই নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।

আজ সকালে ওই এলাকার বিভিন্ন জায়গায় শুভেন্দুর বিরুদ্ধে পোস্টার দেখা যায়। তাতে কোনওটায় লেখা রয়েছে, ‘চোর শুভেন্দু বাংলাকে কলঙ্কিত করছে’, আবার কোনও জায়গায় লেখা রয়েছে, ‘চোর চোর চোরটা শিশিরের ছেলেটা।’ যদিও পোস্টারের নীচে কোনও রাজনৈতিক দল বা কারও নাম না থাকায় কাদের পক্ষ থেকে এই পোস্টার দেওয়া হয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে এই নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।

বিজেপির মেদিনীপুর সংগঠনিক জেলার সহ-সভাপতি অরূপ দাস বলেন, ‘তৃণমূল কংগ্রেসই এরকম নোংরামো করেছে। তৃণমূল যে চোর, চিটিংবাজদের দল ইডি এবং সিবিআইয়ের তদন্তে তা প্রমাণ হয়েছে। এখন মমতা ভয় পাচ্ছে।’ অন্যদিকে পোস্টার দেওয়াকে বিজেপির গোষ্ঠদ্বন্দ্ব বলেই দাবি করেছেন পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটর অজিত মাইতি। তিনি বলেন, ‘এর সঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ। বিজেপিতেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব রয়েছে। তারাই এই পোস্টার লাগিয়েছে। আমাদের কিছু বলার থাকলে মিটিং মিছিলে বলি। এভাবে পোস্টার দিই না। এটা বিজেপির কালচার।’

যদিও পোস্টারের পর পুলিশ এসে সেগুলি সরিয়ে দেয় ১১ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর তথা কংগ্রেস নেতা দেবাশিস ঘোষ এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘এক চোর রাতের অন্ধকারে আর এক চোরের বিরুদ্ধে পোস্টার দিয়েছে।’

বন্ধ করুন